Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০১৯, ০১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১২ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

ঝিনাইদহে বাস চলাচলে মাগুরা মালিক সমিতির বাধা

যাত্রী ভোগান্তি চরমে

ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১২ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

ঝিনাইদহ মালিক সমিতির বাস চলাচলে মাগুরা মালিক সমিতির বাঁধার কারণে ঝিনাইদহ-মাগুরা সড়কে সব ধরণের গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। এতে যাত্রী ভোগান্তি চরমে উঠেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ২ মে ঝিনাইদহ মালিক সমিতির সভাপতি রোকনুজ্জামান রানু ও মাগুরা মালিক সমিতির সভাপতি মীর আবু সাইদসহ উভয় মালিক সমিতির অধিকাংশ নেতার উপস্থিতিতে একটি বৈঠক হয়। সেখানে সিন্ধান্ত হয় ঝিনাইদহ ও মাগুরা মালিক সমিতির গাড়ি যৌথ রোটেশনে চালানো হবে এবং ঝিনাইদহে মাগুরা ও ঝিনাইদহ মালিক সমিতির গাড়ি দাঁড়িয়ে সুবিধা ভোগ করবে। অনুরুপ ভাবে মাগুরাতে মাগুরা মালিক সমিতির গাড়ি যেখানে যেখানে দাঁড়াবে এবং যে সুবিধা ভোগ করবে ঝিনাইদহ মালিক সমিতির গাড়িও সেখানে সেখানে দাঁড়াবে এবং একই সুবিধা ভোগ করবে। সেই চুক্তি, শর্ত ও রোটেশন মোতাবেক গত ২৪ জুন থেকে গাড়ি চালানো শুরু হলে শ্রমিক ইউনিয়নের অসহযোগিতার অজুহাত তুলে মাগুরা মালিক সমিতি মাগুরার ষ্ট্যান্ডগুলোতে গাড়ি দাঁড়াতে দিচ্ছেনা । এ ছাড়াও গাড়ি চলাচলে বাধা সৃষ্টি করে আসছে। এ নিয়ে ৩০ জুন ঝিনাইদহ মালিক সমিতিতে, ১ জুলাই মাগুরা মালিক সমিতিতে ও সর্বশেষ ৯ জুলাই ঝিনাইদহ শ্রমিক ইউনিয়নে উভয় মালিক সমিতি ও শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দর উপস্থিতিতে যৌথ সভা করেও মাগুরা মালিক সমিতির একগুয়েমিপনার কারণে তা সম্ভব হয়নি। তারা ঝিনাইদহ থেকে মাগুরা ফিরে গিয়ে লোকাল গাড়ি ফিরিয়ে দেয়। ঝিনাইদহের মালিকের ঢাকার গাড়িসহ দূরপাল্ল­ার সকল গাড়ি মালিকদের গাড়ি পাঠাতে নিষেধ করে দিয়েছে।

এতে ঝিনাইদহ-মাগুরা সড়কে সব ধরণের গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ঝিনাইদহ মালিক সমিতির সভাপতি রোকনুজ্জামান রানু বলেন, মালিকদের ব্যবসার লক্ষ্যে মাগুরা মালিক সমিতির সাথে একাধিকবার ফোনে কথা বলে এবং সভা করে যৌথ রোটেশনে গাড়ি চালানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। কিন্তু তারা নানা অজুহাতে মাগুরাতে আমাদের গাড়ি দাঁড়াতেই দিচ্ছেনা। মাগুরার অযৌক্তিক দাবির কারণে এর আগেও গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়। তখন খুলনা কমিশনার অফিসে সভা করে সেই গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক হয়েছিল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন