Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

আন্দোলনের জন্য আর কতদিন ধৈর্য্য ধরতে হবে

মির্জা ফখরুলকে জয়নুল আবদিনের প্রশ্ন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে আন্দোলনের জন্য আর কত দিন ধৈর্য্য ধরতে হবে বিএনপি মহাসচিবের কাছে সে প্রশ্ন রেখেছেন দলটির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য জয়নুল আবদীন ফারুক। তিনি বলেন, পুলিশের ভয়ে ঘরে বসে থাকলে নেত্রীর মুক্তি আসবে না। জনগণ বলতে শুরু করেছে, কিছু কর্মসূচি দেন নেতারা। এখনও আন্দোলনে রাস্তায় নামার সাহস আমাদের সবারই আছে। আমাদের কৌশল নিতে হবে, রাস্তায় নামতে হবে, আন্দোলন করতে হবে। মানুষ আমাদের সাথে আছে।

গতকাল (বৃহস্পতিবার) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি এবং গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে অপরাজেয় বাংলাদেশ নামে একটি সংগঠন আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।
জয়নুল আবদীন বলেন, পুলিশকে ভয় পেয়ে যদি আমরা ঘরে বসে থাকি তাহলে দেশনেত্রীর মুক্তি অসম্ভবপর হবে। আমার সংগ্রামী মহাসচিব বলেছেন, সাহস হারানো যাবে না, ধৈর্য্য ধরতে হবে। আমার প্রশ্ন হচ্ছে- কত দিন আমরা ধৈর্য্য ধরব? তৃণমূল প্রস্তুত মহাসচিব মহোদয়। আমরা ৫৭০ জনের দ্বারা কমিটি (কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি) করেছি। তারা আসি না। গ্যাসের দাম, বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি, গুম-হত্যা-শিশু ধর্ষণের প্রতিবাদ জানাতে জনগণ আপনাদের (নেতাদের) কাছে কর্মসূচি চায়। নেতাদের বলব, আমাদেরকে কর্মসূচি দেন।
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতাদের উদ্দেশে সাবেক বিরোধী দলীয় প্রধান হুইপ বলেন, বেগম খালেদা জিয়া ১৮ মাসের উপরে কারাগারে আছে। কী কারণে এত ভয়? তারেক সাহেবকে কেন এত ভয়? তাকে (তারেক রহমান) দেশে আসতে দেন, রাজনীতি করতে দেন। যদি কোনো অন্যায় করে আইন আছে। তারেক রহমানকে নির্বাসিত করে তার বিরুদ্ধে কথা বলবেন সেটা তো রাজনৈতিক কোনো কর্মকাÐ না। এত প্রাচীন একটি রাজনৈতিক দলের মুখে শোভা পায় না।
আওয়ামী লীগ নেতাদের কথা বলায় সংযত হওয়া প্রয়োজন মন্তব্য করে জয়নুল আবদিন ফারুক বলেন, ক্ষমতাসীনদের বলছি, আপনারা পদত্যাগ করেন, বা না করেন। আমার মনে পড়ে, নব্বইতে এরশাদও পদত্যাগের কয়েক ঘণ্টা আগে কোথায় ব্রিজ উদ্বোধন করতে গিয়ে হাসতে হাসতে বলেছিলেন, কিসের পদত্যাগ? সেই এরশাদেরও পতন হয়েছে। আমরা অনেক দেখেছি, অহঙ্কার পতনের মূল লক্ষণ। প্রধানমন্ত্রী দয়া করে আপনার নেতাদের মুখ সংযত করতে বলেন।
ভিপি ইব্রাহিমের সভাপতিত্বে মানববন্ধন কর্মসূচিতে আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য প্রফেসর সিরাজ উদ্দিন আহমেদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, সহ-শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ফরিদা মনি শহীদুল্লাহ প্রমূখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মির্জা ফখরুল


আরও
আরও পড়ুন