Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০১৯, ০১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১২ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

প্রধানমন্ত্রী বরাবর শিক্ষার্থীদের স্মারকলিপি

ধর্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১২ জুলাই, ২০১৯, ১২:৪১ এএম


ধর্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদÐের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে শিক্ষার্থীরা। গতকাল বৃহস্পতিবার ৩ দিনব্যাপী কর্মসূচির শেষ দিনে তারা স্মারকলিপি প্রধান করেন। এর আগে বিকেলে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের (ঢাবি) টিএসসি সংলগ্ন সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাষ্কর্যের নিচে মানববন্ধন করে শিক্ষার্থী ও সচেতন নাগরিক সমাজ।

এদিন বিকাল ৫টায় বিভিন্ন হল ও অনুষদের প্রায় ৫ শতাধিক শিক্ষার্থী কর্মসূচিতে অংশ নেন। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগের ঢাবি শাখার সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তাহসান আহমেদ রাসেল, শামসুন্ন্াহার হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি জেসমিন শান্তা প্রমূখ। মানববন্ধন শেষে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মরকলিপি নিয়ে গণভবনে যান তারা।

এর আগে সকালে সাড়ে ১১টায় রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে বিশেষ ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে এক মাসের মধ্যে ধর্ষককে প্রকাশ্যে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদÐ দেওয়ার জোর দাবিতে কর্মসূচি পালন করেন শিক্ষার্থীরা। এতে ডাকসু, হল সংসদসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা ‘ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শান্তি প্রকাশ্যে মৃত্যুদÐ চাই’,‘পরবর্তী ধর্ষিতা আমি হবার আগে, আমার সুরক্ষা রাষ্ট্রকে বুঝিয়ে দিতে হবে’; ‘শিশুকামীদের ফাঁসি চাই, মৃত্যুদÐ চাই’; ‘বিকৃত মানুষরূপী জানোয়ারমুক্ত সমাজ দাবি নয়, অধিকার’; ‘নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সময়ের দাবি’ ইত্যাদি লেখা পেস্টুন প্রদর্শন করেন।

মানববন্ধনে ডাকসুর কমনরুম ও ক্যাফেটারিয়া বিষয়ক সম্পাদক বি এম লিপি আক্তার বলেন, বাংলাদেশে ধর্ষণের মাত্রা দিনদিন বেড়েই চলছে।
ধর্ষণের জন্য দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। অন্যান্য অপরাধের প্রকাশ্যে বিচার হলেও ধর্ষকদের বিচার হয় না। একটা খুনের চেয়ে ধর্ষণ কোন অংশে ছোট না।

এজন্য প্রকাশ্যে ধর্ষকদের মৃত্যুদÐ দিতে হবে। রোকেয়া হল সংসদের এ জি এস ফাল্গুনী দাস তন্বী বলেন, সবকিছু সহ্যের সীমার বাইরে চলে গেছে। প্রতিনিয়ত ধর্ষণের মতো ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটছে। এমনকি ছোট্ট শিশুরাও রেহাই পাচ্ছে না। তাই এমন উদ্বেগজনক পরিস্থিতিতে ধর্ষককে সংশোধন নয়, বিনাশ চাই।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রধানমন্ত্রী

৯ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ