Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

কলাপাড়ার কাঁঠালপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দেয়াল ও ছাদে ফাটল

শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবক আতংকগ্রস্থ

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৩ জুলাই, ২০১৯, ৬:১৩ পিএম

কলাপাড়ার চাকামইয়া ইউনিয়নের ১১৮ নং কাঁঠালপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হঠাৎ করে দেয়ালে ফাঁটল ও ছাদ ধ্ব:সের ঘটনা ঘটে। গত মংগলবার বিদ্যালয় চলাকালীন সকাল সাড়ে দশটায় হঠাৎ করে বিদ্যালয়ের ছাদ ধ্বসে পড়ে এতে কেউ আহত হয়নি বলে জানা গেছে। বেশ কয়েকদিন একটানা বৃষ্টি থাকায় বুধবার ও বৃহস্পতিবার ছাদের বিভিন্ন অংশ এবং দেয়ালে ফাঁটল পরিলক্ষিত হয়।এতে বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক, শিক্ষার্থী এবং ছাত্র-ছাত্রী সহ অভিভাবকরা উৎকন্ঠায় রয়েছেন। বিদ্যালয়ে শ্রেণি কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.আইয়ুব আলী বলেন এই বিদ্যালয়টি ১৯৮৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়, এখানে বর্তমানে ৪ জন শিক্ষক এবং প্রায় ১০০ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। ১৯৯৮-১৯৯৯ অর্থবছরের এই ভবনটি নির্মিত হয়েছে। এলাকাবাসী এখন কোমলমতি বাচ্চাদের নিয়ে খুবই দুশ্চিন্তায় আছে।

অভিভাবক মো.জালাল উদ্দিন বলেন নিম্নমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহার করে ভবনটি নির্মাণ করা হয়েছে যার কারণে এই অবস্থা আমরা সন্তানদেরকে এই ঝুঁকির মধ্যে স্কুলে পাঠিয়ে সবসময় ভয়ে ভয়ে থাকতে হয়।

কলাপাড়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার(দায়িত্বপ্রাপ্ত) মো.আবুল বাসার বলেন, ইতিমধ্যেই ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে এবং নুতন ভবন পাওয়ার জন্য চাহিদাপত্র পাঠানো হয়েছে। তিনি আরও বলেন বৃহস্পতিবার মাসিক মিটিং এর সিদ্ধান্ত মোতাবেক, আপাতত পাশের মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দুটি রুমে ক্লাস করার জন্য প্রধান শিক্ষককে ব্যাবস্থা নিতে বলা হয়েছে, এ ব্যাপারে আপাতত বরাদ্দকৃত টাকা দিয়ে দুটি রুম করার জন্য সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো.কামরুজ্জামান বলেন, অতি শীঘ্রই যেনো এই সমস্যার সমাধান করে বিদ্যালয়ের স্বাভাবিক লেখাপড়ার পরিবেশ ফিরিয়ে আনা যায় সেজন্য যথাযথ কতৃপক্ষের কাছে জোর দাবি জানানো হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পটুয়াখালী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ