Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ সফর ১৪৪১ হিজরী

হজ নিয়ে কাতার-সউদীর পরস্পরকে দোষারোপ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ জুলাই, ২০১৯, ৪:৩২ পিএম

হজ পালনে তাদের নাগরিকদের বিরুদ্ধে সউদী আরব কড়াকড়ি আরোপ করেছে বলে অভিযোগ করেছে কাতার। তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করে পাল্টা কাতারের বিরুদ্ধেই নিজ দেশের নাগরিকদের ওপর কড়াকড়ি আরোপের অভিযোগ এনেছে সউদী আরবের বিরুদ্ধেই দোহা। এমনকি হজ পালনে দেশটির সরকার বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে বলে দাবি রিয়াদের।

হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বরাতে রোববার সউদী আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সউদী প্রেস এজেন্সি জানিয়েছে, নিজ দেশের নাগরিক ও বাসিন্দাদের হজ এবং ওমরাহ পালনে কাতার সরকার প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেছে বলে অভিযোগ করেছে সউদী। সউদীর এই মন্ত্রণালয়ের অভিযোগ, কাতারসহ বিশ্বের অন্যান্য প্রান্তের হজ ও ওমরাহ যাত্রীদের জন্য প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। তারপরও কাতারি নাগরিকদের হজ ও ওমরাহ পালনে স্উদীতে আসতে দিচ্ছে না দেশটির সরকার।

চলতি বছরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে হজ পালনের জন্য প্রায় ১৭ লাখ এবং ওমরাহর জন্য ৮০ লাখ মানুষ সউদীতে পাড়ি জমাবেন। আরব নিউজ বলছে, ইতোমধ্যে বাংলাদেশ, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া-সহ আরো কয়েকটি দেশের প্রায় ৩৭ হাজার হজযাত্রী সউদীতে পৌঁছেছেন।

তবে কাতারের আওকাফ ও ইসলামি কল্যাণবিষয়ক মন্ত্রণালয় বলছে, পবিত্র নগরী মক্কা ও মদিনায় হজ এবং ওমরাহ পালনেচ্ছুক কাতারের নাগরিকরা সউদী আরবের প্রতিবন্ধকতার মুখোমুখি হচ্ছেন। কাতারের এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে স্উদী।

রিয়াদ বলছে, গত ওমরাহ মৌসুমে স্উদী আরব ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছিল। যেমন কাতারের হজ যাত্রীদের জন্য অন অ্যারাইভাল পদ্ধতি চালু করেছিল। কাতারে সউদী আরবের ওমরাহ নিবন্ধন বিষয়ক ওয়েবসাইট বন্ধ করে দেয়ার পর রিয়াদ ওই ব্যবস্থা নিয়েছিল।

হজ নিয়ে যেকোনো ধরনের রাজনৈতিক প্রচেষ্টা নাকচ করে দিয়েছে সউদী। দেশটি বলছে, দোহার সরকারি বিমান পরিবহন সংস্থা ছাড়া অন্য বিমান পরিবহন সংস্থার বিমানে করে সউদীতে হজ এবং ওমরাহ পালনের জন্য আসতে পারবেন কাতারের নাগরিকরা।

২০১৭ সালের ৫ জুন কাতারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন ও মদদ দেয়ার অভিযোগ এনে অবরোধ আরোপ করে সউদী নেতৃত্বাধীন কয়েকটি দেশ। এই অবরোধ আরোপের জেরে মধ্যপ্রাচ্যে প্রায় একঘরে হয়ে পড়ে কাতার। তখন থেকেই দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কে টানাপড়েন শুরু হয়; যার ধাক্কা লাগে পবিত্র হজ এবং ওমরাহতেও। সূত্র: আরব নিউজ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মধ্যপ্রাচ্য


আরও
আরও পড়ুন