Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

সিলেটে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত, পানিবন্দি ৩ লাখ মানুষ

বাড়ছে জনদুর্ভোগ, নতুন আরো একটি উপজেলা প্লাবিত

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৪ জুলাই, ২০১৯, ৫:৩৯ পিএম

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল আর কয়েকদিনের টানা বর্ষণে প্লাবিত হয়েছে সিলেটের ১৩ উপজেলা। একটি উপজেলা বাদ থাকলেও (দক্ষিণ সুরমা) সেটিও আজ প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দি রয়েছেন প্রায় ৩ লাখ মানুষ। বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত থাকায় বাড়ছে জনদুর্ভোগ। চুলোয় আগুন না জ্বলায় শুকনো খাবার খেয়েই থাকতে হচ্ছে পানিবন্দ মানুষের। তবে ঘর থেকে বের হতে না পারায় সেই খাবারও ফুরিয়ে গেছে। যে কারণে অনেক এলাকার মানুষ না খেয়েই রয়েছেন।
তবে জেলা প্রশাসন থেকে বলা হয়েছে, পানিবন্দি মানুষদের সহায়তায় খোলা হয়েছে মোট ১৯৪টি আশ্রয় কেন্দ্র। দুর্ভোগ লাঘবে ৫০০ টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১৬৪ টন চাল বিভিন্ন উপজেলায় বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া ২০০০ প্যাকেট শুকনো খাবার ও সাড়ে ৩ লাখ নগদ টাকা বিতরণ করা হয়েছে।
সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি, অতিরিক্ত দায়িত্বঃ সার্বিক) মোঃ আসলাম উদ্দিন জানান, সিলেটের বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। পানিবন্দি মানুষের দুর্ভোগ লাগবে সরকার ৫০০ টন চাল বরাদ্দ দিয়েছে। এর মধ্যে ১৬৪ টন চাল বিভিন্ন উপজেলায় বিতরণ করা হয়েছে। নতুন আরো একটি উপজেলা (দক্ষিণ সুরমা) প্লাবিত হয়েছে বলেও তিনি জানান।
তবে ৩ লাখ পানিবন্দি মানুষের তুলনায় যে টাকা ও খাবার বিতরণ করা হয়েছে, তা খুবই সীমিত। যে কারণে মানুষ চরম দুর্ভোগে রয়েছেন। এ দুর্ভোগ লাগবে দ্রুত ত্রাণ সহায়হা বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছেন বন্যা দুর্গতরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বন্যা পরিস্থিতি


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ