Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ০৬ ভাদ্র ১৪২৬, ১৯ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

এনজিওর প্রকল্পে ডিসিরা অনুমতির বিধান চান

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

এনজিওগুলোর প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে জেলা প্রশাসকের অনুমতি নিয়ে কার্যক্রম চালু করতে পারে এমন প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। একই সঙেগ স্থানীয় প্রোগ্রাম/প্রকল্প গ্রহণের ক্ষেত্রে উপজেলা ও জেলা এনজিও সমন্বয় কমিটিতে প্রস্তাব অনুমোদনের পর তা দাতা সংস্থাকে প্রেরণ করা যেতে পারে।
গতকাল সোমবার বিকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কবরী হলে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সম্পর্কিত কার্য-অধিবেশনে এসব প্রস্তাব দেন ডিসিরা। প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মোঃ নজিবুর রহমান,প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসানসহ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সম্মেলন শেষে সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন জেলা প্রশাসকরা। প্রধানমন্ত্রীর কার্য-অধিবেশনে লালমনিরহাটের জেলা প্রশাসক মো.আবু জাফর বলেন, এ জেলার আশ্রয়ণ প্রকল্পগুলোতে পুর্নবাসিত ঋণগ্রহণকারী সদস্যদের মধ্যে ১০১ জন সদস্য মৃত্যুবরণ করেছেন।১০১ জন মৃত ব্যক্তির কাছে ৩ লাখ ৪৯ হাজার ২৮৬ টাকা সার্ভিস চার্জসহ পাওনা রয়েছে। যা আদায় করা সম্ভব হচ্ছে না বিধায় উক্ত টাকা মওকুফ করা যেতে পারে প্রস্তাব করেন তিনি।
কক্সবাজারের ডিসি মো. কামাল হোসেন বলেন, জমির অপ্রতুলতার কারণে সরকারি খাস জমি ক্রমান্বয়ে হ্রাস পাচ্ছে। পরীক্ষামূলকভাবে আশ্রয়ণ ও গুচ্ছ গ্রাম প্রকল্পের আওতায় বহুতল ভবন নির্মাণ করা যেতে পারে। এ প্রস্তাব বাস্তবায়িত হলে খাস জমি/কৃষি জমি রক্ষা করা সম্ভব হবে। অল্প পরিমাণ জায়গায় অধিক গৃহহীন পরিবার সংস্থান করা যাবে। আশ্রয়ণ ও গুচ্ছ গ্রাম প্রকল্পসমূহে বহুতল ভবন নির্মাণ।
নেত্রকোণার জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম বলেন, এনজিও বিষয়ক ব্যুরো’র প্রদত্ত প্রত্যয়ন পত্রের ছক সংশোধন করা যেতে পাবে। জেলাপ্রশাসক কর্তৃক প্রত্যয়নপত্র প্রদানের ক্ষেত্রে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট থেকে সংশ্লিষ্ট কর্মসূচি/কার্যক্রমের বাস্তবায়ন বিষয়ে মতামত নেওয়া হয়। কিন্তু প্রত্যয়নপত্র ছকের ক্রমিক নং ৩-এর গ তে জেলায় প্রকল্পের মোট বরাদ্দ কলাম থাকলেও উপজেলার জন্য কত বরাদ্দ তার কোনো কলাম নেই। ফলে কোন উপজেলায় কী পরিমাণ বরাদ্দ নির্ধারণ করা হয়েছে তা বুঝা যায় না। সে কারণে উপজেলা নির্বাহী অফিসার কর্তৃক যথাযথ মতামত দেওয়া সম্ভব হয় না। এনজিও বিষয়ক ব্যুরো’র প্রদত্ত প্রত্যয়ন পত্রের ছক সংশোধন করা যেতে পারে। এছাড়া এনজিওদের কার্যক্রম সরকারি অর্থবছরের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ না হওয়ায় বাৎসরিক মূল্যায়ন সম্ভব হয় না। প্রকল্প মূল্যায়নকালীন কী পরিমাণ অর্থ ব্যয় করা হয়েছে তার কোনো কলাম এবং খাতভিত্তিক ব্যয়িত অর্থের কলাম না থাকায় বিষয়টি মূল্যায়ন যথাযথ হয় না।
গাইবান্ধা ও নারায়ণগঞ্জ ডিসি বলেছেন, এনজিওগুলোর কার্যক্রম সুষ্ঠু সমন্বয়ের অভাব ও দ্বৈততার কারণে প্রকৃত উপকারভোগীগণ নির্বাচন প্রক্রিয়ায় বাদ পড়ায় এনজিও গুলোর স্থানীয় প্রকল্প/প্রোগ্রামগুলোর কাঙ্খিত ফলাফল অর্জন সম্ভব হয় না। আশ্রয়ণ প্রকল্পের জরাজীর্ণ ব্যারাকগুলো মেরামত, মৃত সদস্য ও ব্যারাক ত্যাগকারী সদস্যদের নিকট পাওনা ঋণ মওকুফ করা যেতে পারে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন