Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬, ২৩ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

ঢাবির নবীন শিক্ষার্থীদের অবস্থান

গেস্টরুম নির্যাতন বন্ধসহ ৬ দাবিতে

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১৭ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

গণরুম ও গেস্টরুমে নবীন শিক্ষার্থীদের নির্যাতন বন্ধসহ ৬ দফা দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন ১ম ও ২য় বর্ষের শিক্ষার্থীরা। গতকাল সোমবার দুপুরে হাতে প্লাকার্ড, ফেস্টুন নিয়ে আন্দোলনে নামেন তারা। এ সময় আবাসিক হলে সিট বরাদ্দে রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ বন্ধ করে প্রথম বর্ষ থেকেই বৈধ সিটের দাবি তোলেন আয়োজকরা।
নবীন শিক্ষার্থীদের ৬ দফা দাবির মধ্যে রয়েছেÑ প্রথম বর্ষ থেকে প্রশাসন কর্তৃক বৈধ সিট নিশ্চিতকরণ, সিট বরাদ্দে রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ বন্ধকরণ, অবৈধভাবে সিট দখলকারীদের অবিলম্বে হল ত্যাগ, পলিটিক্যাল গণরুম বাতিলকরণ, গেস্ট রুম নামক টর্চার সেল বন্ধকরণ, রাজনৈতিকভাবে রুম দখল বন্ধকরণ।
গত শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলে গেস্টরুমে ছাত্রলীগ কর্তৃক প্রথম বর্ষের কমপক্ষে ২৫ জন নবীন শিক্ষার্থীকে এলোপাতাড়ি মারধরের ঘটনায় বিষয়টি আবার আলোচনায় আসে। আয়োজক শিক্ষার্থীরা বলছেন, বিভিন্ন হলে আমাদের বন্ধুদের নির্যাতন করা হলেও তারা মুখ খুলতে পারছেন না। ঢাবির মতো জায়গায় এ ধরনের সংস্কৃতি কোনোভাবেই মেনে নেবেন না বলে জানান তারা।
আন্দোলনের অন্যতম উদ্যোক্তা আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আরমানুল হক বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সিট সঙ্কট মূলত কৃত্রিমভাবে সৃষ্টি করা। ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন এই সঙ্কট সৃষ্টি করেছে। আমরা দেখেছি হলে অবস্থান করা কমপক্ষে ৩০ ভাগ শিক্ষার্থী অবৈধভাবে থাকছে। এদের মধ্যে রয়েছে যাদের ছাত্রজীবন শেষ তারা ও বহিরাগতরা।
গেস্টরুম নির্যাতন বন্ধের দাবি করে আরমান বলেন, প্রথম বর্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের আবাসিক হলে বৈধ সিট দিতে হবে। কাউকে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যোগদান করতে বাধ্য করা যাবে না। ঢাবিতে ভর্তি হওয়ার পর শিক্ষার্থীরা যেন মাথা উঁচু করে পড়ালেখা করতে পারে সে ব্যবস্থা করতে হবে।
কর্মসূচিতে অংশ নেয়া অন্যান্যের মধ্যে রয়েছে, বায়োকেমিস্ট্রি বিভাগের শিক্ষার্থী উমামা, খন্দকার আফসিন আজাদ, ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের প্রমী খিসা, বিশ্ব ধর্ম ও সংস্কৃতি বিভাগের মিলাদুন্নবী আজাদ, পপুলেশন সায়েন্সেস বিভাগের মঈন আহমেদ প্রমুখ। তারা সবাই ১ম ও দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ