Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

কুড়িগ্রামের উলিপুরের হাতিয়ায় নৌকাডুবিতে শিশুসহ ৫ জন নিহত, আহত ৩

কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ জুলাই, ২০১৯, ৭:২৬ পিএম

কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলায় বন্যার পানিতে নৌকা ডুবে ৪ শিশুসহ ৫জনের সলিল সমাধি হয়েছে। গুরুত্বর আহত অবস্থায় ৩ জনকে উদ্ধার করে উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে হাতিয়া ইউনিয়নের নতুন অনন্তপুর গ্রামে এ হৃদয় বিদারক ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ঐএলাকায় শোকের মাতম চলছে।
নৌকায় থাকা প্রত্যক্ষদর্শী রোকেয়া বেগম, রুবেল, লাভলী বেগম, এনামুল ফকির জানান, আমরা ২০/২৫ জন নারী-পুরুষ ও শিশুসহ নৌকা নিয়ে বন্যার পানিতে ডুবে যাওয়া স্বজনদের বাড়ী দেখতে যাওয়ার জন্য রওনা দেই। নৌকাটি ওই বাড়ির কাছাকাছি গেলে বন্যার পানির তীব্র ¯্রােতে নৌকাটি তলিয়ে যায়। ডুবন্ত নৌকায় থাকা শিশু ও মহিলাসহ লোকজন বাঁচার জন্য আত্মচিৎকার করেন। এ সময় অপর একটি নৌকা ঘটনাস্থলে এসে তাদের উদ্ধারের সহায়তা করে। এ সময় ডুবন্ত নৌকায় থাকা অনেকে সাঁতরিয়ে পাশ্ববর্তি উচু স্থানে উঠে আসে। পরে পানিতে তলিয়ে যাওয়া রূপামণি (৮), হাসিবুর (৯) ও রুনা বেগম (৩২)কে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে তাদের মৃত্যু হয়। নৌকা ডুবির ঘটনায় ওই গ্রামের মনসুর আলীর পূত্র সুমন (৮), রাশেদের কন্যা রুকুমনি (৭) পানিতে ডুবে নিখোঁজ হয়। পরে বিকেল ৬ টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল নিখোঁজ সুমন ও রুকুমনিকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করেন। অপরদিকে নৌকা ডুবির ঘটনায় উদ্ধার করা গুরুতর অসুস্থ্য লাভলী বেগম(৪৫), রুমি বেগম(১৬), আয়শা সিদ্দিকা (৫)কে উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ ফখরুল আলম জানান, আহতদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তাদের অবস্থা এখন আগের চেয়ে অনেক ভাল।
কুড়িগ্রাম ফায়ার সাভির্সের উপ-সহকারী পরিচালক মঞ্জিল হক জানান, দীর্ঘ ৪ ঘন্টা চেষ্টার পর নিখোঁজ ২ শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নৌকাডুবি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ