Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ০৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৭ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

অস্তিত্ব সঙ্কটে পড়বে মধ্যপ্রাচ্য : ব্রিটেন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

ইরানের পরমাণু চুক্তি ব্যর্থ হলে মধ্যপ্রাচ্য অস্তিত্ব সঙ্কটে পড়বে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরেমি হান্ট। ব্রাসেলসে ফ্রান্স ও জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে এমন মন্তব্য করেন তিনি। ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে ছয় বিশ্বশক্তির স্বাক্ষরিত পরমাণু চুক্তি বহাল রাখতে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে তুরস্কভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি। জেরেমি হান্ট বলেন, ইরানের পরমাণু চুক্তিকে বাঁচানোর পথ খুব বেশি নেই। এ চুক্তি সঠিক পথে না হাঁটলে পুরো অঞ্চলের অস্তিত্বই হুমকির মুখে পড়বে। তেহরান পারমাণবিক অস্ত্র অর্জনে সক্ষম হলে পুরো মধ্যপ্রাচ্য একটি ‘বিষাক্ত এবং বিপজ্জনক পরিস্থিতির’ মুখে পড়বে। তখন এ অঞ্চলের অন্য দেশগুলোও এটি অর্জন করবে। ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পারমাণবিক অস্ত্র উন্নয়নে যে ধরনের অগ্রগতির প্রয়োজন হয় তা থেকে ইরান এখনও এক বছর দূরে আছে। এখন চুক্তি রক্ষায় আলোচনার জানালা খোলা রাখতে হবে। যুক্তরাজ্য, জার্মানি ও ফ্রান্সের প্রচেষ্টায় চুক্তি টিকিয়ে রাখার ওপরও জোর দেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, দেশগুলোর উচিত সমঝোতা বাঁচাতে ইরানকে উৎসাহিত করা। ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তার দেশ মধ্যপ্রাচ্যে পারমাণবিক অস্ত্রের বিস্তার দেখতে চায় না। তবে এ অঞ্চলকে কিভাবে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করা যায় তা নিয়ে ট্রাম্প প্রশাসনের সঙ্গে যুক্তরাজ্যের মতভিন্নতা রয়েছে। ইরানের পারমাণবিক চুক্তি নিয়েও দুই দেশের মধ্যে মতপার্থক্য রয়েছে।জেরেমি হান্ট বলেন, যুক্তরাজ্য চুক্তি বাঁচাতে চায় এবং তার দেশ সঙ্কট উত্তরণের একটি উপায় খুঁজছে। ২০১৫ সালের জুনে ভিয়েনায় ইরানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, রাশিয়া, চীন ও জার্মানির স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুযায়ী ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কার্যক্রম চালিয়ে গেলেও পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি না করার প্রতিশ্রুতি দেয় তেহরান। পূর্বসূরি ওবামা আমলে স্বাক্ষরিত এই চুক্তিকে ‘ক্ষয়িষ্ণু ও পচনশীল’ আখ্যা দিয়ে গত বছরের মে মাসে তা থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওই বছরের নভেম্বর থেকে তেহরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল শুরু করে ওয়াশিংটন। ইউরোপীয় দেশগুলো চুক্তি বাস্তবায়নের কথা মুখে বললেও কার্যত তারা কোনও পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ করে আসছে ইরান। ইউরোপীয় দেশগুলোর ব্যর্থতার বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়ে এ বছরের মে মাসে চুক্তি থেকে আংশিক সরে আসার ঘোষণা দেয় তেহরান। আনাদোলু।



 

Show all comments
  • আবেদ খান ১৭ জুলাই, ২০১৯, ৪:১৫ এএম says : 0
    সময় হলে দেখা যাবে কারা অস্তিত্বের সংকটে পড়ে
    Total Reply(0) Reply
  • তানবীর ১৭ জুলাই, ২০১৯, ১১:২১ এএম says : 0
    ইরান এগিয়ে যাও , মুসলীম বিশ্ব তোমাদের সাথে আছে
    Total Reply(0) Reply
  • লোকমান ১৭ জুলাই, ২০১৯, ১১:২০ এএম says : 0
    আমেরিকা হলে সমস্যা নেই ইরান হলেই সমস্যা ?
    Total Reply(0) Reply
  • সফিক আহমেদ ১৭ জুলাই, ২০১৯, ১১:১৭ এএম says : 0
    আমার মনে হচ্ছে, ইরানের পরমাণু চুক্তি ব্যর্থ হলে মধ্যপ্রাচ্য কোন অস্তিত্ব সঙ্কটে পড়বে না
    Total Reply(0) Reply
  • নাবিল ১৭ জুলাই, ২০১৯, ১১:১৮ এএম says : 0
    ইরানের পরমাণু শক্তিশালী হলে মধ্যপ্রাচ্য নয়, আপনারা অস্তিত্ব সঙ্কটে পড়বেন
    Total Reply(0) Reply
  • রাসেল ১৭ জুলাই, ২০১৯, ১১:১৯ এএম says : 0
    মুসলীম বিশ্বকে আরও দ্রুত পরমাণু শক্তি অর্জন করতে হবে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্রিটেন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ