Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ০৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৬ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

যে কারণে পারস্য উপসাগরে ৩য় যুদ্ধজাহাজ পাঠাচ্ছে ব্রিটেন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ জুলাই, ২০১৯, ৬:৪৪ পিএম

পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলে তৃতীয় যুদ্ধজাহাজ পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাজ্য। কিছুদিন আগে জিব্রাল্টার প্রণালিতে ইরানের তেলবাহী সুপার ট্যাংকার গ্রেস-ওয়ান আটক করে যুক্তরাজ্য। এরপর একটি ব্রিটিশ তেল ট্যাংকার ইরানি জলসীমার কাছাকাছি চলে আসলে তা ধাওয়া করে ইরান। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে ইরান ও যুক্তরাজ্যের উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। আর এই উত্তেজনার মধ্যেই তৃতীয় যুদ্ধজাহাজ পাঠানোর ঘোষণা দিল যুক্তরাজ্য। তবে ইরানের সাথে সৃষ্ট উত্তেজনা পরিস্থিতির সাথে অঞ্চলটিতে তৃতীয় যুদ্ধজাহাজ পাঠানোর কোনো সম্পর্ক নেই বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, আগামী সেপ্টেম্বরে পারস্য উপসাগরে ‘এইচএমএস কেন্ট’ যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন করা হবে। কৌশলগত কারণে উপসাগরীয় অঞ্চলে নিরাপত্তা রক্ষার কাজে অংশগ্রহণ ধরে রাখতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। উপসাগরীয় অঞ্চলে বর্তমানে ‘এইচএমএস মন্ট্রোস’ নামে ব্রিটিশ যুদ্ধজাহাজটি রয়েছে সেটি মেরামতের জন্য দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এর পরিবর্তে ‘এইচএমএস ডানকান’ নামে একটি ডেস্ট্রয়ার জাহাজ মধ্যপ্রাচ্যে পাঠানো হচ্ছে। আগামী সপ্তাহে ডানকান পারস্য উপসাগরে প্রবেশের কথা রয়েছে।

অন্যদিকে যুক্তরাজ্য কর্তৃক তেল ট্যাংকার আটকের পর যুক্তরাজ্যের প্রতি হুঁশিয়ারি বার্তা দিয়েছে ইরান। লন্ডনে নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত হামিদ বায়েদিনেজাদ বলেছেন, আটক তেলবাহী সুপার ট্যাংকার গ্রেস-ওয়ানকে মুক্তি না দিলে যুক্তরাজ্যকে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। আর এরপরই উপসাগরীয় অঞ্চলে তৃতীয় যুদ্ধজাহাজ পাঠানোর ঘোষণা দেয় যুক্তরাজ্য।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইংল্যান্ড

৪ আগস্ট, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন