Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

ভারতের মাটি থেকে প্রতিটি অবৈধ অভিবাসীকে উৎখাত করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ নয়া দিল্লি: অমিত শাহ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ জুলাই, ২০১৯, ১:৫৩ পিএম

অবৈধ অভিবাসীদের প্রতি কঠোর বার্তা দিয়ে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বুধবার বলেছেন যে সরকারি অনুমোদন ছাড়া দেশে বসবাসকারী একেবারে প্রতিটি ব্যক্তিকে তাড়িয়ে দিতে সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

জাতীয় নাগরিক নিবন্ধনের (এনআরসি) জোরালো সমর্থক হিসেবে পরিচিত অমিত শাহ বলেন, দেশের প্রতিটি ইঞ্চি জায়গা থেকে অনুপ্রবেশকারীদের নির্মূল করার যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে সাধারণ নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল, বিজেপি তা বাস্তবায়ন করতে দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ।

বর্তমানে আসামে এনআরসি বাস্তবায়িত হচ্ছে। ১৯৭১ সালের পর ওই রাজ্যে প্রবেশ করা ব্যক্তিদের শনাক্ত করার কাজ চলছে সেখানে।

পার্লামেন্টে অমিত শাহ বলেন, এনআরসি হচ্ছে আসাম চুক্তির অংশবিশেষ। বিজেপিও নির্বাচনী ইস্তেহারে ক্ষমতায় এলে তা বাস্তবায়ন করবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। সরকার দেশের মাটির প্রতিটি ইঞ্চি খুঁজে দেখবে সেখানে অবৈধ অভিবাসী আছে কিনা। আর পাওয়া গেলে আন্তর্জাতিক আইনানুসারে তাদেরকে বহিষ্কার করা হবে।

মন্ত্রী আরো বলেন, অনুপ্রবেশ বন্ধে আন্তর্জাতিক সীমানায় বেড়া দেয়া, সীমান্ত রক্ষীদের নজরদারি বাড়ানো, সীমান্তে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করার মতো পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের সময় ও পর হাজার হাজার হিন্দু ও মুসলিম আসামে প্রবেশ করেছে বলে বলা হয়ে থাকে। এসব লোক আসাম ছাড়াও পশ্চিমবঙ্গ, ঝাড়খণ্ড, বিহার, এমনকি দিল্লিতে পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছে বলে বলা হয়ে থাকে।

ভারত সরকার বাংলাদেশ ও পাকিস্তান থেকে যাওয়া হিন্দু, বৌদ্ধ, জৈন, শিখদের নাগরিকত্ব দিতে বিশেষ আইন প্রণয়ন করছে।

ভারত সরকার ইতোমধ্যেই ৪০ হাজার রোহিঙ্গা মুসলিমকে বহিষ্কার করার কাজ শুরু করেছে। তারা মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশ হয়ে ভারতে প্রবেশ করেছিল। নয়া দিল্লি তাদেরকে নিরাপত্তা হুমকি মনে করে।

সূত্র : সাউথ এশিয়ান মনিটর।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন