Inqilab Logo

শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ মুহাররম ১৪৪৪

প্রশাসনের হস্তক্ষেপে স্কুল শিক্ষকের মেয়ের বাল্যবিয়ে বন্ধ

প্রকাশের সময় : ৬ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা

শ্রীনগরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের বাল্য বিয়ে বন্ধ হয়েছে। গতকাল রোববার সকালে উপজেলার নতুনবাজার এলাকার টেটামারা গ্রামে উপস্থিত হয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) দিলরুবা শারমিন উত্তর বালাসুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হুমায়ূন কবিরের মেয়ে মরিয়ম আক্তার হেনার (১৪) বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেন। তিনি জানান, মরিয়মের বিয়ের বয়স না হলেও ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সিদ্দিক হাওলাদার ১৮ বছর পূর্ণ হয়েছে মর্মে প্রত্যয়নপত্র প্রদান করেন। স্থানীয়রা জানায়, মরিয়ম ওই এলাকার বিসমিল্লাহ কিন্ডার গার্টেন ও জুনিয়র হাইস্কুলের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী। তার সাথে গতকাল একই গ্রামের হাশেম কাড়ালের মালয়েশিয়া প্রবাসী পুত্র মো ঃ সবুজ (৩৫) এর বিয়ের কথা ছিল। বিয়ে উপলক্ষে মেয়ের বাড়িতে সকল আয়োজনও সম্পন্ন হয়। খবর পেয়ে এসিল্যান্ড দিলরুবা শারমিন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিয়েটি বন্ধ করে দেন। সরজমিনে উত্তর বালাসুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, হুমায়ূন কবির বিদ্যালয় থেকে তার মেয়ের সকল রেকর্ডপত্র সরিয়ে ফেলেছেন। অফিস রুমের একটি টেবিলে দেখা যায় বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা মিলে বিয়েতে দেয়ার জন্য একটি উপহার সাজিয়ে রেখেছেন। বয়স সংক্রান্ত প্রত্যয়নপত্র দেয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক সিদ্দিক হাওলাদার কোন সদুত্তর দিতে পারেননি। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো ঃ জামাল উদ্দিন জানান, বয়সের কোন প্রত্যয়নপত্র সিদ্দিক হাওলাদার আইনত দিতে পারেন না। এর জন্য তিনি ব্যক্তিগতভাবে দায়ী হবেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রশাসনের হস্তক্ষেপে স্কুল শিক্ষকের মেয়ের বাল্যবিয়ে বন্ধ
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ