Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৮ বৈশাখ ১৪২৮, ০৮ রমজান ১৪৪২ হিজরী

ঘনকুয়াশা ও রেকর্ড বৃষ্টিতে দক্ষিণাঞ্চলে জনজীবন বিপর্যস্ত

দুটি প্রধান ফেরি রুটে যোগাযোগ স্থবির পাঁচ শতাধিক যানবাহন আটকা

প্রকাশের সময় : ৩০ জানুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

নাছিম উল আলম : সাম্প্রতিককালের সর্বনিম্ন তাপমাত্রায় মৃদু থেকে মাঝারী শৈত্যপ্রবাহের রেশ না কাটতেই ঘন কুাশার সাথে মেঘের দাপটে গতকাল সকাল থেকে বরিশালসহ সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলের জনজীবন আবারো অনেকটাই বিপর্যস্ত হয়ে পরে। গতকাল বরিশালে মেঘের আড়াল কাটিয়ে সূর্যের আঁভা ছড়াতে শুরু করে দুপুর সোয়া ১টার পরে। দুপুর পৌনে ২টার দিকে সূর্য মামা বরিশাল মহানগরীতে প্রথম রোদ নিয়ে হাজির হয়। ঘন কুয়াশায় শুক্রবার ভোর রাত থেকে সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলসহ মেঘনা অববাহিকায় নৌ যোগাযোগ বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। দেশের দ্বিতীয় ও তৃতীয় বৃহৎ দুটি ফেরি রুটে বৃহস্পতিবার রাত দেড়টা থেকে গতকাল সকাল সাড়ে ৭টা পর্যন্ত যানবাহন পারপার বন্ধ রাখতে হয় ঘন কুয়াশার কারণে। এসময় মাওয়া শিমুলিয়া, কাওড়াকান্দী এবং চাঁদপুর-শরিয়তপুর রুটের ফেরিঘাটগুলোতে ৫ শতাধিক যানবাহন আটকা পরে। কুয়াশার দাপটে শরিয়তপুর-চাঁদপুর রুটে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টা থেকে গতকাল সকাল ৯টা পর্যন্ত যানবাহন পারপার বন্ধ ছিল।
ঘন কুয়াশার সাথে মেঘলা আকাশ এবং বৃষ্টির ফলে বোরো বীজতলার সাথে রোপা ধান ও গোলআলুসহ সব ধরনের রবি ফসলের ঝুঁকি ক্রমশ বাড়ছে। এসময়ে কৃষকদের বিশেষ সতর্কতার পাশাপাশি ফসলের নিবিড় পরিচর্যার পরামর্শ দিয়েছেন কৃষিবীদরা।
তবে এ ঘন কুয়াশার মধ্যেই পটুয়াখালীতে শীত মৌসুমের রেকর্ড পরিমাণ ১০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে গতকাল রাতের শেষ প্রহরে। উপকূলের কক্সবাজার, টেকনাফ ও কুতবদিয়াতেও সামান্য বৃষ্টির কথা জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। তবে বরিশালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পারদ
ঘনকুয়াশা ও রেকর্ড
আরো দশমিক ৯ ডিগ্রী সেলসিয়াস উঠে গিয়ে গতকাল সকালে তা ১৫.২ ডিগ্রী সেলসিয়াসে স্থির ছিল। গত ২৫ জানুয়ারী বরিশালে সম্প্রতিককাল সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৭.৪ ডিগ্রী সেলসিয়াস। এর পর থেকেই দফায় দফায় তাপমাত্রার পাড়দ ওপরে উঠছে প্রতিদিন। তবে তাপমাত্রা বাড়লেও উত্তর-পূবের মৌসুমী হাওয়ায় শীতের তীব্রতার অনুভূতি অনেক বেশী।
গতকাল (শুক্রবার) সকালে সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলেই সকাল হয় সূর্য কিরণ ছাড়াই ঘন কুয়াশার মধ্যে। এমনকি সকাল ৮টার পরেও ১শ’ মিটার দুরত্বের কিছু দৃশ্যমান ছিল না। মেঘনা ও পদ্মা বক্ষ সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত ঘন কুয়াশায় ঢেকে ছিল। এসময় মেঘনা ও এর শাখা নদ-নদীগুলোতে শতাধিক যাত্রীবাহী নৌযান আটকা পড়ে। বিআইডব্লিউটিসি’র বরিশাল-ঢাকা রুটের রকেট স্টিমার ‘পিএস মাহসুদ’ গতকাল প্রায় ৮ ঘন্টা বিলম্বে দুপুর ৩টার পরে গন্তব্যে পৌঁছে। রাজধানীর সাথে দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন রুটের শতাধীক নৌযানে অন্তত ৩০ হাজার যাত্রী গতকালের ঘন কুয়াশায় আটকা পড়ে অবর্ণনীয় দুর্ভোগের শিকার হন।
আবহাওয়ার পূর্বাভাশে মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত নদী অববাহিকায় মাঝারী থেকে ঘন কুয়াশা এবং দেশের অন্যত্র হালকা কুয়শার দাপট অব্যাহত থাকার কথা জানান হয়েছে। পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টিপাতের সম্ভবনার কথাও জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকার পাশাপাশি দিনের তাপমাত্রা বৃদ্ধির কথাও জানান হয়েছে। পূবালী লঘু চাপের বর্ধিতাংশ বাংলাদেশ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানের কথা জানিয়ে এসময়ের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। শ্রীমঙ্গলসহ কয়েকটি এলাকায় যে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ চলছে তা অব্যাহত থাকার কথাও বলা হয়েছে। গতকাল দক্ষিণাঞ্চলের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ভোলাতে ১৪.৩ ডিগ্রী সেলসিয়াস। দিনাজপুরে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৯.২ ডিগ্রী সেলসিয়াস।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঘনকুয়াশা ও রেকর্ড বৃষ্টিতে দক্ষিণাঞ্চলে জনজীবন বিপর্যস্ত
আরও পড়ুন