Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ০৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৬ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

কাতারকে পেয়ে খুশি বাংলাদেশ কোচ জেমি

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

২০২২ কাতার বিশ্বকাপের চুড়ান্ত লড়াইয়ে বাংলাদেশের খেলার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। তারপরও বিশ্বকাপের বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে টুর্নামেন্টের আয়োজক কাতার’কে নিজেদের গ্রুপে পেয়ে বেশ খুশি বাংলাদেশের ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে। কারণ তিন বছর পরের বিশ্বকাপের চুড়ান্ত লড়াইয়ের আগেই আয়োজকদের বিপক্ষে দু’টি ম্যাচ খেলতে যাচ্ছে লাল-সবুজরা। এতে নিজেদের প্রমাণের দারুণ এক সুযোগ পাবেন বাংলাদেশের ফুটবলাররা।

২০২২ কাতার বিশ্বকাপ ফুটবলের বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্ব ও ২০২৩ সালের এশিয়ান কাপ বাছাই পর্বের ড্র ১৭ জুলাই মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রথম পর্ব টপকে যাওয়া ছয়টি এবং র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা ৩৪টিসহ মোট ৪০ দলকে নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় এই ড্র। ড্র’তে কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে ‘ই’ গ্রুপে বাংলাদেশ প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছে আফগানিস্তান, স্বাগতিক কাতার, ভারত এবং ওমান’কে।

কাতার বর্তমানে এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন দল। তারা সর্বশেষ এশিয়া কাপের ফাইনালে জাপানকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে। ২০২২ বিশ্বকাপের আয়োজকও কাতার। এমন একটি দেশ’কে নিজেদের গ্রুপে পেয়ে উচ্ছ¡াস প্রকাশ করেন বাংলাদেশের ইংলিশ কোচ জেমি। নিজ দলকে এশিয়ান গেমস ফুটবলের এবং কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে তোলা এই কোচ এখন ছুটিতে। ড্র শেষে জেমি’র সঙ্গে ওই দিনই যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। তবে গতকাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দৈনিক ইনকিলাবকে নিজের প্রতিক্রিয়া জানান জেমি ডে। তিনি বলেন,‘২০২২ কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে নিজেদের গ্রুপে আয়োজক দেশ’কে পেয়ে আমি খুবই খুশি। কাতার আমাদের গ্রুপে পড়ায় বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচেগুলোতে দারুণ এক অভিজ্ঞতা হবে বাংলাদেশ দলের। গ্রুপে কাতারের পাশাপাশি ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটিও হবে আমার জন্য দারুণ এক অভিজ্ঞতা। পাশাপাশি আফগানিস্তান এবং ওমান ম্যাচটিও হবে রোমাঞ্চকর।’

জেমি ডে আরো বলেন, ‘এবার বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে আমরা যাদের মোকাবেলা করতে যাচ্ছি তারা সবাই শক্ত প্রতিপক্ষ। এই চার দলকে টপকে পরের রাউন্ডে যাওয়ার আশা আমাদের নেই। কারণ সবাই আমাদের চেয়ে র‌্যাঙ্কিং, মান এবং অভিজ্ঞতায় অনেক অনেক এগিয়ে। আমরা নিজেদের সেরা খেলাটাই খেলার চেষ্টা করবো। এখানকার ম্যাচগুলোর অভিজ্ঞতা থেকে আমার ছেলেরা নিজেদের আরো ভালো খেলোয়াড় হিসেবে তৈরি করার একটা সুযোগ পাবে।’

সর্বশেষ রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইয়ে নিজেদের গ্রুপে অস্ট্রেলিয়া, জর্ডান ও কিরগিজস্তানের মতো শক্ত দল পেয়েছিল বাংলাদেশ। সে তুলনায় এবারের প্রতিপক্ষ কাতার, ভারত, ওমান ও আফগানিস্তান শক্তিশালী হলেও খুবই পরিচিত বাংলাদেশের। র‌্যাঙ্কংয়ে পিছিয়ে থাকলেও এই দলগুলোর সঙ্গে বহুবার মাঠের লড়াইয়ে নেমেছে লাল-সবুজরা। তাই বিশ্বকাপের বাছাইয়ে এবার পরিচিত দলগুলোকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়ে নিজেদের প্রমাণের সুযোগ পাচ্ছে বাংলাদেশ।

বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে ‘ই’ গ্রুপে বাংলাদেশসহ পাঁচ দলের মধ্যে ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে এশিয়ান কাপের চ্যাম্পিয়ন কাতার। র‌্যাঙ্কিংয়ের ৫৫তম অবস্থানে আছে তারা। বাকিদের অবস্থানও বাংলাদেশের চেয়ে বেশ ভালো। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ওমান ৮৬, ভারত ১০১ এবং আফগানিস্তান ১৪৯তম স্থানে আছে। যেখানে বাংলাদেশের অবস্থান ১৮৩তম স্থানে। গ্রুপের সব দল হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে পরস্পরের মোকাবেলা করবে। খেলা শুরু হবে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর থেকে। চলবে ২০২০ সালের ৯ জুন পর্যন্ত। বাংলাদেশের কাতার বিশ্বকাপ মিশন শুরু হবে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে। ১০ সেপ্টেম্বর লাল-সবুজরা প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের মাঠে স্বাগতিক দলের মোকাবেলা করবে।

বাংলাদেশ দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে ১০ অক্টোবর। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম এ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ২০২২ বিশ্বকাপের আয়োজক কাতার। তৃতীয় ম্যাচে লাল-সবুজরা মাঠে নামবে ১৫ অক্টোবর চির প্রতিদ্বন্ধি¦ ভারতের বিপক্ষে। ভারতের মাঠে অনুষ্ঠিত হবে এ ম্যাচটি।

বাছাই পর্বে বাংলাদেশের চতুর্থ প্রতিপক্ষ ওমান। মধ্যপ্রাচ্যের এ দেশটির বিপক্ষে লাল-সবুজদের অ্যাওয়ে ম্যাচ ১৪ নভেম্বর। ফিরতি লেগের প্রথম খেলা আগামী বছর ২৬ মার্চ ঢাকায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে। ৩১ মার্চ কাতার গিয়ে খেলবে বাংলাদেশ। ভারত ঢাকায় এসে খেলবে আগামী বছরের ৪ জুন। ৯ জুন ঢাকায় ওমানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শেষ হবে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে দ্বিতীয় পর্ব। পরের রাউন্ডে উঠতে না পারলে ওটাই হবে কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়ে বাংলাদেশের শেষ ম্যাচ।



 

Show all comments
  • MD Shohel ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১:৪৭ এএম says : 0
    শুভ কামনা আমার দেশের পতি।
    Total Reply(0) Reply
  • Sk Shamim Hossain Narail ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১:৪৮ এএম says : 0
    শুভকামনা
    Total Reply(0) Reply
  • Gm Zaman ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১:৪৮ এএম says : 0
    প্লানমত এগিয়ে যান.. সাফল্য আসলেও আসতে পারে... শুভকামনা বাংলাদেশ
    Total Reply(0) Reply
  • Sabbir Rahim ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১:৪৮ এএম says : 0
    Hope for the best but ami jani sas mas ki hoba sooo sopno daktacina taba valo kaluk aetae cay
    Total Reply(0) Reply
  • MD Rafshan ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১:৪৮ এএম says : 0
    ভালো কিছুর আশায় রইলাম
    Total Reply(0) Reply
  • Uddin Mohammed ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১:৪৮ এএম says : 0
    বাংলাদেশ প্রতিটি দলের কাছে হারবে। কারন বাংলাদেশের খেলার সিস্টেম ভালোনা। যদি ভালো করতে চায় তাহলে বতর্মান লীগ সিস্টেম বাদ দিতে হবে। আর প্রতিটি বিভাগ থেকে তিন থেকে চারটি জেলা বাছাই করে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ চালু করলে দেশের খেলার মান বাড়বে আর নতুন নতুন প্লেয়ার উঠে আসবে। সেটা অবশ্যই আমার মতামত।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Sabbir Hossen ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১:৪৯ এএম says : 0
    বাংলাদেশ চেষ্টা করলে আগামী ১৫-২০ বছরের মধ্যে বিশ্ব কাপ খেলতে কারন বাংলাদেশী অনেক খেলোয়ার ইংলিশ লিগে খেলে, তাছাড়া দল আরও উন্নতি করতে পারে মাস্টার প্লান অনুযায়ী আগালে বাংলাদেশ যদি কোনো দিন ফুটবল বিশ্বকাপ খেলতে পারে তাহলে সেদিন ক্রিকেট আর জনপ্রিয়তা মাটির তলায় চলে যাবে
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Rubel Sheikh ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১:৪৯ এএম says : 0
    দ্রুত উন্নতির জন্য বাফুফের উচিৎ ইংল্যান্ডকে ফলো করা প্রবাসী কিছু ফুটবলার সংগ্রহ অথবা ভিনদেশী ফুটবলারদের নাগরিকত্ব দিয়ে ফুটবলটা একবার মানসম্মত করতে পারলে দেশের ফুটবল অটোমেটিক চাঙ্গা হয়ে যাবে তখন তরুন প্রজন্ম ফুটবলের প্রতি ঝুকলে এমনিতেই প্রতিভা বের হয়ে আসবে
    Total Reply(0) Reply
  • নিশাত হাবিব ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১:৪৯ এএম says : 0
    গ্রুপ দেখে সন্তুষ্ট হয়েই বা কি লাভ? সেই তো গ্রুপের লাস্ট টীম হিসেবে কোন জয় ছাড়াই বাদ পড়ে যাবে।।।
    Total Reply(0) Reply
  • Enam Misbah ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১:৪৯ এএম says : 0
    গতিশীল ফুটবল খেলতে হবে। টুকটুক করে পাসিং পাসিং খেলা বন্ধ করতে হবে। সেটা দেখতে সুন্দর লাগলেও জয় পাওয়া কঠিন।
    Total Reply(0) Reply
  • MD.rejaul karim ২৩ জুলাই, ২০১৯, ১১:০৫ এএম says : 0
    Hamza dauanka team a anta hobe
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কোচ জেমি
আরও পড়ুন