Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬, ২৩ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

নেত্রকোনায় শিশুকে গলা কেটে হত্যা ও গণপিটুনিতে শিশু নিহতের ঘটনায় থানায় দুটি মামলা

নেত্রকোনা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ জুলাই, ২০১৯, ২:৩৫ পিএম

নেত্রকোনা জেলা শহরে প্রকাশ্য দিবালোকে শিশু সজিবের গলা কাটা মস্তক নিয়ে ঘুরে বেড়ানো এবং গণপিটুনিতে শিশু হত্যাকারী যুবক রবিন নিহত হওয়ার ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সজিবকে নৃশংসভাবে গলা কেটে হত্যার ঘটনায় শিশু সজিবের পিতা রইস উদ্দিন বাদী হয়ে রবিনের নাম উল্লেখ পূর্বক অজ্ঞাত ব্যাক্তিদেরকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। গণপিটুনিতে শিশু হত্যাকারী রবিন নিহত হওয়ার ঘটনায় নেত্রকোনা মডেল থানার এ এস আই রফিক বাদী হয়ে অজ্ঞাত সংখ্যক ব্যাক্তিকে আসামী করে অপর মামলাটি দায়ের করেন।

এ উপলক্ষ্যে নেত্রকোনা জেলা পুলিশ শুক্রবার বেলা ১১টায় পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক প্রেস ব্রিফিং-এর আয়োজন করে। প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, সাংবাদিকরা ঘটনার বাস্তবচিত্র তুলে ধরলেও উক্ত হত্যাকান্ডকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে কতিপয় লোক ছেলে ধরা ও পদ্মা সেতুতে ছেলে শিশুদের মাথা দেয়ার কথা বলে যে গুজব ছড়াচ্ছে, তা আদৌ সত্য নয়, নিতান্তই অসত্য ও বিভ্রান্তিমূলক। তিনি সাংবাদিকদের মাধ্যমে এ ধরনের গুজব না ছড়ানোর জন্য সকলের প্রতি অনুরোধ জানান। পাশাপাশি সকল অভিভাবকদেরকে আতংকিত না হওয়ারও পরামর্শ প্রদান করেন। তবে প্রেস ব্রিফিংয়ে কি কারণে এ নৃশংস হত্যাকান্ডটি সংঘটিত হয়েছে তা এখন বলতে পারেননি তিনি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। শীঘ্রই হত্যাকান্ডের প্রকৃত রহস্য উদঘাটিত হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রবিন শিশু সজিবকে হত্যা করে তার মস্তক (মুন্ডু) নিয়ে জেলা শহরের বারহাট্টা রোডস্থ শ্রমিক ইউনিয়নের সামনে মেথর পট্টিতে মদ পান করে মাতলামি করার সময় তার ব্যাগ থেকে শিশুর গলাকাটা মস্তক মাটিতে পড়ে যায়। তা দেখে উত্তেজিত জনতা তাকে ধাওয়া করে নিউটাউন পঁচা পুকুর (অনন্ত পুকুর) পাড়ে গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেলে।



 

Show all comments
  • Ab Salam ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১১:৪৩ পিএম says : 0
    ঐ ছেলে টিকে মেরে না ফেলে ওর কাছ তেকে তথ্য বের করা ভাল ছিল।
    Total Reply(0) Reply
  • Ab Salam ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১১:৪৩ পিএম says : 0
    ঐ ছেলে টিকে মেরে না ফেলে ওর কাছ তেকে তথ্য বের করা ভাল ছিল।
    Total Reply(0) Reply
  • আরিফুল ইসলাম ২০ জুলাই, ২০১৯, ১২:৫৩ এএম says : 0
    এই কল্লা কাটাতে সংসদের বড় কোন নেতা বা নেএীর হাত থাকতে পারে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ