Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

‘কোরবানীর বর্জ্যমুক্ত থাকবে রাজশাহী মহানগরী’

রাজশাহী ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ২১ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানির পশু জবেহ এবং দ্রুত সময়ে বর্জ্য অপসারণে ব্যাপক উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। কোরবানির দিন রাতের মধ্যেই সকল বর্জ্য অপসারণ করা হবে। যাতে পরদিন পরিচ্ছন্ন শহর দেখতে পারেন নগরবাসী। গতকাল শনিবার দুপুরে নগর ভবনের সিটি হল সভাকক্ষে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন পরিষদের বিশেষ সাধারণ সভায় এসব কথা বলেন মেয়র। সভায় পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানীর পশু জবেহ সম্পর্কে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভা থেকে নগরবাসীকে নির্দিষ্ট স্থানে পশু জবেহ করার আহ্বান জানান মেয়র।

সভায় সভাপতির বক্তব্যে মেয়র বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা মোতাবেক নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানীর পশু জবেহের কার্যক্রমটি গত কয়েক বছর থেকে হয়ে আসছে। সারাদেশে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ পরিবেশে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপন উপলক্ষে ব্যাপক কর্মসূচি গৃহীত হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে নগরীতে নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানীর পশু জবেহকরণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

বিগত বছরগুলোতে পরিচ্ছন্নতার এ কাজটি সফলভাবে বাস্তবায়নে রাসিকের পরিচ্ছন্ন বিভাগের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ধন্যবাদ জানিয়ে মেয়র লিটন বলেন, ঈদ-উল-আযহার দিন পরিচ্ছন্ন বিভাগে কর্মরত সকলের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। পরিচ্ছন্ন বিভাগের কর্মচারীরা ঈদের দিন থেকে নিরসলভাবে কাজ করবেন। রাতের মধ্যেই সকল বর্জ্য অপসারণ করা হবে।
পরদিন পরিচ্ছন্ন নগরী আমরা দেখতে পাব।

সভায় আরো বক্তব্য দেন রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযীম, ২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন, ১৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহাদত হোসেন শাহু, ১১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রবিউল ইসলাম তজু, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাওগাতুল আলম, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা শাহানা আখতার জাহান, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ মো. মামুন ডলার প্রমুখ। এ সময় প্যানেল মেয়র-২ ও ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, প্যানেল মেয়র-৩ ও ১নং সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মোসা. তাহেরা খাতুনসহ অন্যান্য কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ