Inqilab Logo

বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

পঞ্চগড় সেটেলমেন্ট অফিসে ভূমি মালিক লাঞ্চিতের

প্রকাশের সময় : ৬ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

পঞ্চগড় জেলা সংবাদদাতা : পঞ্চগড় সদর উপজেলার সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসে বহিরাগত দালালদের উৎপাত বেড়ে যাওয়ায় ভূমি মালিকরা নানা ভাবে হয়রানী হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গতকাল রোববার দুপুরে এ দপ্তরে আকস্মিক ঘটনায় এক ভূমি মালিক আহত হয়ে পঞ্চগড় সদর হাসপাতালে ভর্ত্তি হয়েছে। তার নাম মোঃ সাহাবুল্লাহ পিতা- জয়েন উদ্দীন সাং- শিবনাত, হাফিজাবাদ পঞ্চগড় সদর। হাসপাতালে ভর্ত্তি হওয়া ওই ভূমি মালিক মোঃ সাহাবুল্লাহ জানান, তার মৌজার আওতায় সাড়ে ৬ বিঘা জমির মাঠ পর্চার জন্য তার নিকট তারই এলাকার মোঃ আবু সাঈদ দীর্ঘদিন আগে ১৩ হাজার টাকা নেয়। সাহাবুল্লাহ অভিযোগ করেন সে ওই অফিসের একজন দালাল হিসেবে পরিচিত তাই তাকে টাকা দিয়েছি। এর আগে জমির বদর করার জন্য (মাপযোক) তিনবার ১৫ শত করে টাকা নেয়। কিন্তু এবার সে বদর করার জন্য টাকা দাবি করে। অভিযোগকারী জানান, বার বার বদর করার জন্য এতো টাকা কোথায় পাওয়া যায়। এব্যাপারে মোঃ আবু সাঈদের সাথে কথা বললে তিনি জানান, উপ-সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার মোঃ সফিউল আলমের টেবিলের সামনে আমাকে প্রথমে সাহাবুল্লাহ আঘাত করে। পরে আমি তাকে ও আঘাত করি। জানা যায়, সাহিরুল, আকবর হোসেন, ওসমানসহ মোট ১৩ জন বহিরাগত দালালের উৎপাতে ভূমি মালিকরা আসল কর্মকর্তাদের কাছে ভিড়তে পারে না। এছাড়া ওই অফিসে কর্মরত আতিক নামের এক কর্মচারীর দুর্নীতি এখন সবার মুখে মুখে। তিনি টাকা ছাড়া কিছুই বুঝেন না বলে এক ধরনের সমালোচনা রয়েছে। বিগত এক বছর আগে তার বদলী হওয়ার বিষয়টি রহস্যজনক ভাবে স্থগিত হয়ে যায়।এব্যাপারে সহকারী সেটেলম্যান্ট অফিসার পঞ্চগড় সদর মোঃ আবু মুতালেব এই অপ্রীতিকর ঘটনার বিষয়টি আমি দেখব। তবে মারামারির বিষয়ে উপ-সহাকারী সেটেলম্যান্ট অফিসার মোঃ সফিউল আলম বলেন, সে সময় ঘটনাটি আমি দেখেছি। প্রথমে সাহাবুল্লাই আঘাত করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পঞ্চগড় সেটেলমেন্ট অফিসে ভূমি মালিক লাঞ্চিতের
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ