Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ০৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে বাবা-ছেলেসহ ৪ জনের মৃত্যু

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

দেশের পৃথক স্থানে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে বাবা-ছেলেসহ নিহত হয়েছে চারজন। পঞ্চগড় ও কুড়িগ্রামে ছিড়ে থাকা বিদ্যুতের তারে বিদ্যুতায়িত হয়ে তাদের এমন করুণ মৃত্যু ঘটে। আমাদের সংবাদদাতাদের পাঠানো তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিবেদন:

তেঁতুলিয়া (পঞ্চগড়) উপজেলা সংবাদদাতা : পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাফিজাবাদ ইউনিয়নের মাহানপাড়া এলাকায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে একই পরিবারের বাবা ও দুই ছেলের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন, ওই এলাকার শহিদুল ইসলাম (৬০) তার বড় ছেলে নাজিরুল ইসলাম (৩০) ও ছোট ছেলে আসাদুল ইসলাম (১৮)। শনিবার রাত ৮ টায় এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, গত শনিবার সন্ধার পরপরই বাড়ির অদূরেই মাছ ধরতে যায় নাজিরুল। এ সময় পানির উপর ছিড়ে পড়া বিদ্যুতের তারে বিদ্যুতায়িত হয়ে থাকা পানির মধ্যে পা বাড়ানো মাত্রই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে পড়েন নাজিরুল।

পরে তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে একে একে ছোট ভাই আসাদুল ও তার বাবা শহিদুল ও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে পড়েন। পরে স্থানীয়রা পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে ফোন দিয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে তাদের উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় পঞ্চগড়-১ আসনের সংসদ সদস্য মজাহারুল হক প্রধান, জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন ও পুলিশ সুপার ইউসুফ আলী হাসপাতালে গিয়ে নিহতের পরিবারকে সান্তনা দেন। ে

জলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহত পরিবারকে তাৎক্ষণিক ৫০ হাজার টাকা অর্থ সহায়তা দেয়া হয়। এদিকে বাবা ও দুই ছেলের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা : কুড়িগ্রামের উলিপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছে এক কিশোরের । গতকাল রোববার দুপুরের দিকে কাসারিয়ার ঘাট গ্রামে।

নিহতের পরিবার সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নের কাসারিয়ার ঘাট গ্রামের বকুল মিয়ার পুত্র পারভেজ মিয়া (১৫) ওই ইউনিয়নের কচাপাড়া গ্রাম থেকে নিজের বাড়িতে আসার পথে বাচ্চা মিয়ার বাড়ি সংলগ্ন জমিতে বন্যার পানিতে ছিড়ে পড়ে থাকা বিদ্যুতের তাড়ে জড়িয়ে ঘটনাস্থলই বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মারা যান।

 

 



 

Show all comments
  • জি এম মাহবুব আলম পিয়াল ২২ জুলাই, ২০১৯, ১২:৩৩ এএম says : 0
    বৈদ্যুতিক কর্মকর্তাদের অবহেলার কারণে এ মৃত্যু গুলো হয়েছে।তাদের সচেতনতাই পারে মৃত্যু হার হ্রাস করতে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মৃত্যু


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ