Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ০৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

প্রিয়া সাহার বক্তব্যের পেছনে মার্কিন দূতাবাসের ‘দুরভিসন্ধি’

ফেসবুক স্ট্যাটাসে জয়

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাতে বাংলাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতনের যে অভিযোগ প্রিয়া সাহা করেছেন, তার পেছনে মার্কিন দূতাবাসের ‘দুরভিসন্ধি’ রয়েছে বলে সন্দেহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে ও তার তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের। এই ধরনের কাজের পিছে একটাই কারণ চিন্তা করা যায়: মানবিকতার দোহাই দিয়ে আমাদের এই অঞ্চলে সেনা অভিযানের ক্ষেত্র প্রস্তুত করা।
গতকাল ফেসবুকে এক পোস্টে তিনি লিখেছেন, যখন তাদের একজন মনোনীত অংশগ্রহণকারী তাদেরই রাষ্ট্রপ্রধানের কাছে কোনো ভয়ংকর মিথ্যা বক্তব্য দিলেন, তাদের উচিত ছিল তাৎক্ষণিকভাবে তার প্রতিবাদ জানানো, যা তারা করেননি।

প্রিয়া সাহার অভিযোগ খন্ডন করতে গিয়ে জয় লিখেছেন, উনি বলেছেন বাংলাদেশ থেকে নাকি ৩ কোটি ৭০ লক্ষ ধর্মীয় সংখ্যালঘুরা ‘গায়েব’ বা ‘গুম’ হয়ে গেছেন। প্রায় ৪ কোটির কাছাকাছি যে সংখ্যাটি উনি বলছেন তা আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যার ১০ গুণেরও বেশি, আর দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নিহতদের সংখ্যার কাছাকাছি। এতো মানুষ গুম হলো সবার অজান্তে? ৩ কোটি ৭০ লক্ষ মানুষ গায়েব হলো কোনো তথ্য প্রমান ছাড়াই?

নিজের সন্দেহের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা লিখেছেন, এই বিষয়টি থেকে কিন্তু মার্কিন দূতাবাসেরই দুরভিসন্ধি প্রকাশ পায়। তারা জেনেশুনেই প্রিয়া সাহাকে বাছাই করে কারণ তারা জানতো উনি এই ধরনের ভয়ংকর মিথ্যা মন্তব্য করবেন।

প্রিয়া সাহার এ কাজের পেছনে ‘সেনা অভিযানের ক্ষেত্র প্রস্তুত’ করার অভিসন্ধি থাকতে পারে- এমন মন্তব্য করে জয় লিখেছেন, মনে রাখা ভালো, কয়েক দিন আগেই মার্কিন এক কংগ্রেসম্যান একটি বক্তব্যে বলেছিলেন বাংলাদেশের মায়ানমারের রাখাইন রাজ্য দখল করা উচিত।

নিজের সন্দেহের কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র জয় লিখেছেন, মার্কিন দূতাবাস যে আওয়ামী লীগ বিরোধী তা নতুন কিছু নয়। তাদের সকল অনুষ্ঠানেই জামাত নেতাকর্মীরা ও যুদ্ধাপরাধীরা নিয়মিত আমন্ত্রিত হতেন। প্রিয়া সাহার মিথ্যা বক্তব্যকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশে তাদের সরাসরি আধিপত্য বিস্তারের ষড়যন্ত্র পরিষ্কারভাবেই লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

মার্কিন দূতাবাসের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন করলেও যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান সরকার এবং তাদের অবস্থানের প্রশংসা করেছেন সজীব ওয়াজিদ জয়। সৌভাগ্যবশত, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার সরকার অন্যান্য দেশের আভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার নীতিতে বিশ্বাসী নন। তারা এই ধরনের ভয়ংকর মিথ্যা দাবি বিশ্বাস করার মতন বোকাও নন।



 

Show all comments
  • Faisal Uddin Sajib Mullah ২২ জুলাই, ২০১৯, ১:৪৯ এএম says : 0
    আমারও তাই মনে হয়। মার্কিন রাষ্ট্রদূত বরিশাল সফরে গেলেন। আবার প্রিয়া সাহার বাড়িও বৃহত্তর বরিশাল।
    Total Reply(1) Reply
    • Yourchoice51 ২২ জুলাই, ২০১৯, ৯:৩৬ এএম says : 0
      Let's do what's good for the country; ignore the liar.
  • Faisal Uddin Sajib Mullah ২২ জুলাই, ২০১৯, ১:৪৯ এএম says : 0
    আমারও তাই মনে হয়। মার্কিন রাষ্ট্রদূত বরিশাল সফরে গেলেন। আবার প্রিয়া সাহার বাড়িও বৃহত্তর বরিশাল।
    Total Reply(0) Reply
  • ম্যান অফ দ্যা ইসলাম ২২ জুলাই, ২০১৯, ১:৫০ এএম says : 0
    বিষয়টি এখন একদম স্পষ্ট, প্রিয়া সাহা এনজিওতে থাকায় বিদেশ থেকে অনুদান অানাটা ওনার জন্য একদম সহজ ছিল! সেজন্য ওনার গ্রামের অব্যবহৃত বাড়ি জ্বালিয়ে সেটা বিদেশিদেরকে দেখিয়ে অনুদান(ভিক্ষা) অারও বেশি করে অানতেন!! -অব্যবহৃত বাড়িটি জ্বালানোর তথ্য দিয়েছে ওর হিন্দু প্রতিবেশীরাই!যেটা এখন মিডিয়াতে প্রচার হচ্ছে! সূত্রঃযমুনা টিভি -- অবশেষে যখন ট্রাম্পকে কাছে পেলেন, তখন অারও বেশি কিছুর অাশায়ই এই অভিযোগটি করছেন বলে অামার মনে হয়!!
    Total Reply(0) Reply
  • Riyan Riyan ২২ জুলাই, ২০১৯, ১:৫১ এএম says : 0
    তাকে আইনের আওতায় নিয়ে৷ আসা হোক
    Total Reply(0) Reply
  • Ajoy Shil ২২ জুলাই, ২০১৯, ১:৫২ এএম says : 0
    উনি সরাসরি আওয়ামী লীগের উপর দোষ ছাপিয়ে কথা বলেন নি - তবে তার একার পক্ষে সম্ভব না এতটুকু পয'ন্ত্য যাওয়া --- এর পেছনে কারা জরিত আগে সেটা বের করুন
    Total Reply(0) Reply
  • Nirjor Sopno ২২ জুলাই, ২০১৯, ১:৫২ এএম says : 0
    এটা অর্থনৈতিক ভাবে এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশ কে চাপে ফেলতে এবং হিন্দুদের উপর নতুন করে হামলা করতে একটা মৌলবাদী গ্রুপের চক্রান্ত..প্রিয়া সাহা চক্রান্তের শিকার..
    Total Reply(0) Reply
  • Masum Sikder ২২ জুলাই, ২০১৯, ১:৫৩ এএম says : 0
    আমি এক জন বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে প্রতি বাদ জানাচছি বাংলাদেশ সরকারের কাছে প্রিয়া সাহা দেশে এনে বিচার করা হইক। মানুষ হয়তো মিথ্যা কথা বলে। কিন্তু এই দালাল হিন্দু মহিলা যে মিথ্যা কথা গুলো বলছে সিমাহিন মিথ্যা কথা বলেছে। এই মহিলা ইনডিয়ার দালাল হয়ে কাজ করছে।আমার প্রিয়ও মাতৃভূমি বাংলাদেশের সকল ভাই ও বোন এবং দাদা ও দিদি সবার কাছে অনুরোধ করছি এর প্রতিবাদ করুন। আর একটু কথা হলো এই দালাল মহিলা প্রিয়া সাহা একা নয় ওনার সাথে আরো লোক আছে। প্রিয়া সাহা কে দেশে এনে বিচার করা হইক এরা বিষাক্ত সাপ দেশ কে ধংশ করে দেয়।
    Total Reply(0) Reply
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ২২ জুলাই, ২০১৯, ১১:৫৩ এএম says : 0
    বঙ্গবন্ধুর দোহিত্র বাংলাদেশের কোটি কোটি মানুষের মনের কথা বলেছেন। ........................
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ