Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ০৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে বালাগঞ্জের ইউপি চেয়ারম্যান আইসিইউতে

বালাগঞ্জ (সিলেট) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ জুলাই, ২০১৯, ১১:৫০ এএম

সিলেট ঢাকা মহাসড়কে ‘অজ্ঞান পার্টি’র খপ্পরে পড়ে গুরুতর আহত হয়েছেন বালাগঞ্জের পূর্ব পৈলনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মতিন। রবিবার (২১ জুলাই) দুপুরে মৌলভীবাজার থেকে বালাগঞ্জে আসার পথে তিনি অজ্ঞান পার্টির কবলে পড়েছেন বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

রবিবার রাত সাড়ে ১১টায় তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউ’তে স্থানান্তর করা হয়েছে। তিনি সংজ্ঞাহীন অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার অবস্থা অনেক সংকটাপন্ন বলে পূর্ব পৈলনপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও অসুস্থ চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মতিনের মামা আব্দুর রহমান জানিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ইউপি চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মতিন রবিববার (২১ জুলাই) দুপুরে মৌলভীবাজার বাসা থেকে বালাগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। ধারণা করা হচ্ছে বিকাল ২টা নাগাদ তিনি সিলেট ঢাকা মহাসড়কের শেরপুর থেকে ওসমানীনগর উপজেলার তাজপুরের উদ্দেশ্যে বাসে উঠেন। তাজপুর নেমে তার বালাগঞ্জ যাবার কথা ছিল। ধারণা করা হচ্ছে তাজপুর আসার আগেই তিনি অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েন। সিলেটগামী চলন্ত বাসটি স্থানীয় লালাবাজার এলাকায় পৌঁছার পর বাসের কণ্ট্রাক্টর ভাড়া চাইতে গিয়ে তাকে নিদ্রাচ্ছন্ন দেখতে পান। পরবর্তীতে সিলেট কদমতলী বাসস্টেশনে সকল যাত্রী নামতে শুরু করলে তাকে ডাকা হয়। এ সময় তাকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় উদ্ধার করে বাসে থাকা যাত্রী ও পথচারীদের সহযোগিতায় বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বাস থেকে উদ্ধারকালে তার সঙ্গে থাকা ২টি মোবাইলসহ টাকা পয়সা পাওয়া যায়নি। তার পকেট খালি পাওয়া গেছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। পরিবারের লোকজন ও উদ্ধারকারী লোকজন ধারণা করছেন, শেরপুর থেকে তাজপুর আসার আগেই পথিমধ্যে তিনি ‘অজ্ঞান পার্টি’র খপ্পরে পড়ে থাকতে পারেন।

পরবর্তীতে ফেসবুকে ছবি দেখে গুরুতর অসুস্থ ইউপি চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মতিনের পরিবারের লোকজন হাসপাতালে ছুটে আসেন। চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মতিনের মামা পূর্ব পৈলনপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান, বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বোয়ালজুড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনহার মিয়া, পূর্ব পৈলনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, ইউপি সদস্য শিহাব উদ্দিন প্রমুখ আলাপকালে জানিয়েছেন, তারা বিকালে ফেসবুকের মাধ্যমে প্রথমে সংবাদ পান। হাসপাতালে অজ্ঞান ও চিকিৎসাধিন অবস্থায় চেয়ারম্যানের ছবি ফেসবুকে দেয়া হলে চেয়ারম্যানের পরিচিত বালাগঞ্জের বিভিন্ন লোকজন ও তার পরিবারের সদস্যরা সন্ধান পান।

রবিবার রাতে আলাপকালে সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান জানিয়েছেন, তার ভাগনা বর্তমান চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মতিনের অবস্থা সংকটাপন্ন। বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে। রোববার (২১ জুলাই) রাত সাড়ে ১১টায় তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ‘আইসিইউ’তে স্থানান্তর করা হয়েছে।

এদিকে গুরুতর অসুস্থ ইউপি চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মতিনকে দেখতে রবিবার সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছুটে যান সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বোয়ালজুড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনহার মিয়া, বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সামস উদ্দিন সামস, সিলেট জেলা পরিষদের সদস্য লোকন মিয়া, দেওয়ান বাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমুল আলম, পূর্ব গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিমাংশু রঞ্জন দাস প্রমুখ



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অজ্ঞান পার্টি


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ