Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ০৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

সুরভী-৮ লঞ্চের কক্ষে হত্যাকান্ডের ঘাতক আটক

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২২ জুলাই, ২০১৯, ৩:২৬ পিএম

ঢাকা-বরিশাল রুটের নৌযান ‘এমভি সুরভী-৮’এর কর্মচারী কক্ষে গার্মেন্টস কর্মী শারমিন হত্যার একমাত্র ঘাতক সুমন’কে আটক করেছে বরিশালের র‌্যাব-৮ গোয়েন্দারা। হত্যাকান্ডের ৩২ ঘন্টার মধ্যেই হত্যাকারী সুমন(৩২)কে পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ার নকবুল্লা গ্রামের সিপাহী বাড়ী থেকে রবিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে র‌্যাব গোয়েন্দারা আটক করে বরিশালে নিয়ে আসে। রাতভর জিজ্ঞাসাবাদে সুমন এ হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করেছে বলে সোমবার দুুপুরে এক প্রেস ব্রিফিং-এ জানিয়েছেন র‌্যাব কর্মকর্তাগন।

সেল ফোনের মাধ্যমে দীর্ঘ দিনের কথোপকথনে সুমনের সাথে নিহত শারমিনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সুমন ঢাকার সদর ঘাট নৌ টার্মিনালের ১ নম্বর গেটের সামনে ফল ব্যাবসায়ী। কথোপকথনের এক পর্যায়ে পূর্ব পরিকল্পনা মাফিক গত শুক্রবার শারমিন সদর ঘাটে আসে। সেখানেই সুমনের সাথে তার দেখা হয় এবং পূর্ব পরিকল্পনা মাফিক দুজনে ঢাকা থেকে বরিশালগামী সুরভী-৮ নৌযানে আরোহন করে। সেখানে তারা একটি স্টাফ কেবিন ভাড়া করে অবস্থান করে। রাত ১১টার দিকে দৈহিক সম্পর্ক স্থাপন করতে চাইলে শারমিন তাতে বাধা দেয় এবং বিষয়টি আসে পাশের লোকদের জানাবার কথা বললে, সুমন গলাটিপে শারমিননকে হত্যা করে।

এমনকি শারমিনের মৃত্যু নিশ্চিত হয়ে সারা রাত একই বিছানায় লাশের পাশেই শুয়ে থাকে ঘাতক সুমন। সকাল সাড়ে ৪টার দিকে নৌযানটি বরিশাল বন্দরে ভিড়লে সুমন সুকৌশলে কক্ষ থেকে বেরিয়ে সটকে পরে। সকালে নৌযানটির কক্ষ থেকে শারমিনের লাশ উদ্ধারের পরে র‌্যাব বিষয়টি নিয়ে গোয়েন্দা নজরদারী শুরু করে। এরই এক পর্যায়ে পুরো বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে ভান্ডারিয়া থেকে সুমনকে আটক করতে সক্ষম হয় র‌্যাব-৮’এর সদস্যরা।

সোমবার দুপুরে বরিশালে র‌্যাব-৮’এর সদর দপ্তরে এক প্রেস ব্রিফিং-এ উপ-অধিনায়ক মেজর খান সজিবুল ইসলাম জানান, জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত সুমন পুরো ঘটনা স্বীকার করেছে। নিহত শারমিন ঢাকার একটি গার্মেন্টস কর্মী এবং বিবাহিতা ও এক কণ্যা সন্তানের জননী। সে বরিশালেরই বাকেরগঞ্জ উপজেলার বড় পুইয়াউটা গ্রামের বজলু বেপারীর মেয়ে। স্বামী থাকলেও তাদের মধ্যে সম্পর্ক ভাল ছিলনা। ঘাতক সুমনও বিবাহিত। নিহত শারমিনের সেল ফোনটিও সুমনের বাড়ী থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার দুপুরেই আটক সুমনকে বিএমপি’র কোতয়ালী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বরিশাল


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ