Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ০৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

বিশ্ব সাঁতার চ্যাম্পিয়নশিপে ৬৩ তে ৬২ জুয়েল

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ জুলাই, ২০১৯, ৮:৩০ পিএম

বিশ্ব সাঁতার চ্যাম্পিয়নশিপে শেষ থেকে দ্বিতীয় হয়ে অনন্যা কৃতিত্ব দেখিয়েছেন বাংলাদেশের সাঁতারু জুয়েল আহমেদ। তিনি ৬৩ জন প্রতিযোগির মধ্যে ৬২তম স্থান পেয়ে সাঁতার শেষ করেন। সোমবার দক্ষিণ কোরিয়ার গুয়াংজু শহরে ফিনা ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে’র ১০০ মিটার ব্যাকস্ট্রোক ইভেন্টে এই কৃতিত্ব অর্জন করেন জুয়েল। আগের দিন একই আসরে ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে বাংলাদেশের আরেক সাঁতারু আরিফুল ইসলাম ৮৭ জনের মধ্যে পান ৭৮তমস্থান। আর সোমবার তাকে ছাড়িয়ে গেছেন জুয়েল। আরিফুলের চেয়েও বড় ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে তিনি হন ৬২তম। নিজের ইভেন্ট শেষে জুয়েলের উচিত ছিল খুশিতে আফগানিস্তানের সাঁতারু হেদায়েতুল্লাহ নুরজাদকে বুকে জড়িয়ে ধরা। কারণ হেদায়েতুল্লাহ যদি ১০০ মিটার ব্যাকস্ট্রোকে সবার পেছনে না থাকতেন তবে আরো বড় লজ্জায় পড়তে হতো বাংলাদেশের সাঁতারুকে। আফগান সাঁতারুই মান বাঁচিয়েছেন জুয়েলের। তা না হলে বাংলাদেশের সাঁতারুর অবস্থান হতো শেষ থেকে প্রথম। অর্থাৎ এ ইভেন্টে অংশ নেয়া ৬৩ জনের মধ্যে সবার শেষে।

গুয়াংজুর পুলে এদিন এক নম্বর হিটে সাঁতরান জুয়েল আহমেদ। এই হিটে ছিলেন ৪ জন। ১ মিনিট ৫ সেকেন্ড সময় নিয়ে সাঁতার শেষ করে জুয়েল হন তৃতীয়। তিনি প্রথম ৫০ মিটার অতিক্রম করেছিলেন ৩০.২৭ সেকেন্ডে। কিন্তু শেষ ৫০ মিটার যেতে সময় নিয়েছেন ৩৪.৭৩ সেকেন্ড। তার পেছনে ছিলেন আফগানিস্তানের হেদায়েতুল্লাহ। সব হিট মিলিয়ে ৬৩ জনের মধ্যে এই দু’জনই সবার পেছনে। এই ইভেন্টে হিট পেরিয়ে সেমিফাইনালে জায়গা পাওয়া ১৮ সাঁতারুর মধ্যে সর্বশেষ জনের টাইমিং ছিল ৫৪ দশমিক ০৭ সেকেন্ড। গুয়াংজুর পুলে জুয়েল যে পারফরমেন্স করেছেন তাতে জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে গড়া নিজের সেরা টাইমিংয়ের ধারে কাছেও যেতে পারেননি। গত মার্চে দেশে ১ মিনিট ০ দশমিক ৭৬ সেকেন্ড সময় নিয়ে সাঁতার শেষ করেছিলেন জুয়েল। বিশ্ব সাঁতার চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিতে যাওয়া বাংলাদেশের একমাত্র নারী সাঁতারু জোনায়না আহমদে পুলে নামবেন বুধবার। ওই দিনই তিনি অংশ নেবেন ২০০ মিটার বাটার ফ্লাইয়ে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ