Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

কলকাতা হাইকোর্টের এজলাস বয়কট সরকারি আইনজীবীদের

রাজনৈতিক মন্তব্য বিচারপতির

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

কলকাতা হাইকোর্টে নজিরবিহীন ঘটনা! বিভিন্ন মামলায় সরকারের সমালোচনা করে মন্তব্য করায় বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়ের এজলাস বয়কট করলেন সরকারি আইনজীবীরা। তৃণমূল লিগ্যাল সেলের তরফে ভাস্কর প্রসাদ বৈশ্য সরাসরি বিচারপতিকে এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে এসেছেন।

শুক্রবার বনগাঁ পুরসভার আস্থা ভোট নিয়ে পুরপ্রধান শংকর আঢ্যকে তীব্র ভর্ৎসনা করেন বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘মানুষের সুবিধার জন্য আপনাকে নির্বাচিত করা হয়েছে। জনসাধারণকে পরিষেবার দেওয়ার জন্য আপনাকে নির্বাচিত করা হয়েছে। সংখ্যাগরিষ্ঠতা যখন আপনার সঙ্গে নেই, তখন আপনাকে আস্থা ভোটের মুখোমুখি হতেই হবে। ফল ভোগ করতেই হবে। এত নির্লজ্জ কেন আপনি? কেন চেয়ার আঁকড়ে পড়ে রয়েছেন?›

এই ইস্যুতেই সরকারি আইনজীবীদের অভিযোগ, রাজনৈতিক মন্তব্য করেছেন বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়। বনগাঁ মামলায় এই বিচারপতির থেকে ন্যায় ও সুবিচার আশা করা যায় না বলে দাবি আইনজীবীদের। আইনজীবী ভাস্কর বৈশ্য জানান, এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির হস্তক্ষেপ চেয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে।

সোমবার ফের বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়ের এজলাসে বনগাঁ মামলার শুনানি হওয়ার কথা। শুনানি শেষে বনগাঁ অনাস্থা মামলার রায় ঘোষণারও সম্ভাবনা ছিল। তার মধ্যেই সরকারি আইনজীবীরা জানিয়ে দেন, রায় ঘোষণার সময়ে তারা কেউই এজলাসে থাকবেন না।

সোমবার হাইকোর্টে গঙ্গারামপুরের একটি মামলা চলছিল। সেটিও বনগাঁ মামলার মতোই অনাস্থা ইস্যুতে। সেই মামলা চলাকালীন বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় আইনজীবী ভাস্কর বৈশ্যকে প্রশ্ন করেন, ‘কেন এই ধরনের ঘটনা বারবার ঘটছে?’ জবাবে ভাস্কর বৈশ্য জানিয়ে দেন, ‘আমরা এই এজলাসে যোগ দেব না।’ এ কথা বলেই এজলাস ছেড়ে বেরিয়ে যান রাজ্যের আইনজীবীরা।

বিক্ষুব্ধ আইনজীবীদের দাবি, বিধাননগরের প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্তের মামলায় বনগাঁ নিয়ে মন্তব্য করেন বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়। অথচ সেই সময় বনগাঁর মামলাটি ফাইল হয়নি। তাঁদের প্রশ্ন, কীভাবে এমনটা হয়? বিচারপতি কি মামলার তথ্য আগেই পেয়ে গিয়েছিলেন? সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ