Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ০৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৭ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

মশা মারতে কামান দাগাতে চাই না

প্রিয়া সাহা প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার মিথ্যা দেশবিরোধী অভিযোগের বিষয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিষয়টার গভীরে আমরা যাচ্ছি, সবকিছু জেনেশুনে সিদ্ধান্ত নিতে চাই। তার বক্তব্য নিয়ে সরকার ‘মশা মারতে কামান দাগাতে চায় না’।
গতকাল সচিবালয়ে ঈদ উপলক্ষে সড়ক বিভাগের প্রস্তুতি এবং সমসাময়িক বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে একথা জানান মন্ত্রী। শেখ হাসিনা যখন বিরোধী দলে ছিলেন তার বক্তব্যে অনুপ্রাণিত হয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের কাছে বক্তব্য দিয়েছেন- প্রিয়া সাহার এমন দাবি প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনার বক্তব্যে তিন কোটি ৭০ লাখ লোক মিসিং- এ কথা তো নাই। শেখ হাসিনা তো এরকম কোনো কথা বলতে পারেন না। এ ধরনের বক্তব্য মার্কিন প্রেসিডেন্টের কাছে বলা, এটা আমাদের দেশকে ছোট করা। এটা একটা কাল্পনিক বক্তব্য, উদ্দেশ্য প্রণোদিত বক্তব্য। আমরা রয়ে সয়ে অগ্রসর হচ্ছি, মশা মারতে আমরা কামান দাগাতে চাই না।
তিনি বলেন, বিষয়টা নিয়ে আমরা আরো খোঁজ-খবর নিয়েছি, এসব বক্তব্য দেওয়ার পেছনে অন্য কারো হাত আছে কিনা? তিনি যখন দেশে ফিরবেন, তিনি বলেছেন দেশে ফিরবেন। তখন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে যে, তিনি কী উদ্দেশ্যে বলেছেন, কেন বলেছেন, কী ইনফরমেশনের ভিত্তিতে বলেছেন- সেটা তাকে অবশ্যই ব্যাখ্যা করতে হবে। আর শেখ হাসিনা মাইনরিটি নিয়ে যে বক্তব্য দিয়েছেন সে বক্তব্যের সঙ্গে সংখ্যাতত্তে¡র এই বিষয়টাতে কোনো মিল নেই।
দেশে না এলে কী ব্যবস্থা নেবেন- প্রশ্নে কাদের বলেন, উনি নিজেই বলেছেন দেশে ফিরে আসবেন। আর এটা এমন একটা বিষয় নয় যে জোর করে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে আসতে হবে, এরকম কিছু আমরা পাইনি। আমরা খতিয়ে দেখছি, সেরকম কিছু হলে পরে দেখা যাবে। তবে প্রিয়া সাহা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক। কাজেই এটাকে তো তুচ্ছ জ্ঞান করতে পারি না। বিষয়টার গভীরে আমরা যাচ্ছি, সবকিছু জেনেশুনে আমরা সিদ্ধান্ত নিতে চাই।
প্রিয়া সাহার বক্তব্য শেখানো কথা কি-না? এমন প্রশ্নে কাদের বলেন, সেটা আমাদের জানা নেই। কারো প্ররোচণা করেছে কি-না, পেছনে কোনো রাজনৈতিক মতলব আছে কি-না, উস্কানি আছে কি-না, আমরা বিষয়টা খতিয়ে দেখছি। তার স্বামী দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) চাকরি করেন- এ বিষয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, উনার স্ত্রী অন্যায় করল, সেটার জন্য স্বামীকে কেন অভিযুক্ত করতে হবে- এটা তো কোনো আইনে নেই। আর এক পরিবারে সবাই এক মতাদর্শী হবেন- এমন কথা নেই।
ঈদে মহাসড়কের যাতায়াতের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের জানান, পবিত্র ঈদ-উল-আযাহায় আগের সাতদিন এবং পরের তিন দিন মোট দশ দিন সিএনজি ফিলিং স্টেশন ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকবে। ঈদের আগে তিন দিন ও পরের তিন দিন ভারী যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। পচনশীল দ্রব্য, গার্মেন্ট ও ওষুধবাহী যানবাহন যথারীতি চলবে।
সড়কের কারণে যানজটের সৃষ্টি হবে না আশা করে কাদের বলেন, দেশের বন্যা কবলিত এলাকায় সড়কগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং তা জরুরি ভিত্তিতে মেরামত করা হচ্ছে। মহাসড়কে কোথাও সমস্যা সৃষ্টি হওয়ার কোন কারণ নেই, সব গুড শেইপে রয়েছে এবং ভালও থাকবে। সেতুমন্ত্রী আরো বলেন, যত্রতত্র রাস্তা এবং রাস্তার আশে পাশে যেন পশুর হাট না বসে সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট সকলকে জানোনো হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন