Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ক্ষুধা, দারিদ্র্য, সাম্প্রদায়িকতামুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি -ড.আব্দুর রাজ্জাক

আরিচা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৩ জুলাই, ২০১৯, ৭:৫২ পিএম

কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে এ দেশের হিন্দু,মুসলিম, ,বৈদ্ধ্য, খ্রিস্টান ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষ সশস্ত্র যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ছিনিয়ে এনেছিলেন। বঙ্গবন্দুর নেতৃত্বে ক্ষুধা-দারিদ্র, সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত অনন্য সম্প্রতির বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছিল তখন ষড়যন্ত্রকারীরা বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করে সেই অগ্রযাত্রাকে থামিয়ে দেয়। বঙ্গবন্ধু পরবর্তী সরকারগুলো অতীতে সাম্প্রদায়িকতার আশ্রয়ে দেশ চালিয়েছে এবং দেশে গনতন্ত্র ধ্বংস পুর্বক অনন্য সম্প্রতির বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করেছে। ইনশাআল্লাহ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের গনতন্ত্র অনন্য সম্প্রতির বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা হয়েছে। আমরা বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে ক্ষুধা, দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশকে গড়ার লক্ষে উন্নয়নের শিখরে পৌছানোর জন্য কাজ করে যাচ্ছি। ঠিক সেই সময়ে আবার ষড়যন্ত্রকারীরা দেশের সম্প্রতি বিনষ্টের চেষ্টা চালাচ্ছে। তাদের ষড়যন্ত্রের দাঁতভাঙ্গা জবাব দেয়া হবে।
মন্ত্রী মঙ্গলবার মানিকগঞ্জের পদ্মা-যমুনা তীরবর্তী শিবালয় ও দৈলতপুর উপজেলার বন্যার্তদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণের প্রাক্কালে বক্তব্যকালে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
মন্ত্রী আরো বলেন, বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার-নির্যাতনের মাধ্যমে সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প ছড়িয়ে দেয়া হয়েছিল সর্বত্র। গনঅতন্ত্র ধ্বংসের চেষ্টা কালে দেশের মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে ভোটের মাধ্যেমে শেখ হাসিনা নেতৃত্বে সরকার গঠন করে। এরপর আর পিছন তাকাতে হয়নি। দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পন্ন। সাম্প্রদায়িকতামুক্ত দেশ হিসেবে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। জোট সরকারের আমলে ত্রানের মালামাল লুটপাটসহ ঘুষ-দূর্নীতীতে দেশ ছেয়ে গিয়েছিল। দেশের একটি মানুষও না খেয়ে মরবে না। দুর্যোগকালে আওয়ামীলীগ আপনাদের পাশে ছিল,আছে, থাকবে ইনশাআল্লাহ।
এ সময় মন্ত্রীর সাথে স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ এএম নাঈমুর রহমান দুর্জয়, মির্জা আজম এমপি, অসীম কুমার উকিল এমপি, আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় নেতা এডভোকেট আফজাল হোসেন, সুজিত রায় নন্দী, শামসুন নাহার চাঁপা, এডভোকেট রিয়াজুল কবীর কাওছার,আনোয়ার হোসেন, মারুফা আক্তার পপি, উপাধ্যক্ষ রেমন্ড আরেং। জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট গোলাম মহিউদ্দিন, শিবালয় উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ রেজাউর রহমান খান জানুসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ওবং জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কৃষিমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ