Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬, ২৩ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

বৃদ্ধকে চাপা দিয়ে আত্মগোপন চালক দুই বছর পর গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ জুলাই, ২০১৯, ১২:২২ এএম

পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন বৃদ্ধ হরিদাস গোপ। নিজ বাড়িতে ঘি তৈরি করে পল্টন ও পুরান ঢাকায় বিক্রি করতেন। ২০১৭ সালের ১৩ আগস্ট ঘি বিক্রির জন্য পল্টনে আসেন হরিদাস। ওইদিন সকাল সোয়া ৯টার দিকে গুলিস্তান এলাকায় রাস্তা পার হওয়ার সময় একটি দ্রæতগামী এলিয়ন প্রাইভেট কারের চাপায় তার মৃত্যু হয়।

ঘটনার পর প্রত্যক্ষদর্শীদের সহযোগিতায় পুলিশ গাড়িটি আটক করতে পারলেও পালিয়ে যায় ঘাতক চালক মো. নুরুল আমিন (৫৯)। ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দুই বছর পর গত সোমবার রাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বাবর রোড থেকে পলাতক চালক নুরুলকে গ্রেফতার করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) ঢাকা মেট্রোর (উত্তর) একটি দল।

গ্রেফতার নুরুল আমিনের বাড়ি ল²ীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার মাছিমপুর গ্রামের উত্তর হরিদচর দরগা শরীফ এলাকায়। এ ছাড়া নিহত হরিদাস গোপের বাড়ি গাজীপুরের কালিয়াকৈরের সাদুল্লাপুর গ্রামে।
পিবিআই ঢাকা মেট্রো (উত্তর) বিশেষ পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ বলেন, নিহত হরিদাসের ছেলে গৌতম গোপের করা পল্টন মডেল থানার মামলার ভিত্তিতে তদন্তে নামে পিবিআই। দীর্ঘ তদন্ত শেষে পিবিআই ঢাকা মেট্রোর (উত্তর) পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ তরিকুল ইসলাম সোমবার রাতে মোহাম্মদপুর থেকে তাকে গ্রেফতার করে।

তরিকুল ইসলাম বলেন, হরিদাস গোপকে চাপা দেয়ার পর নুরুল আমিন প্রাইভেট কার ফেলে কৌশলে পালিয়ে যান এবং মোবাইল ফোন বন্ধ করে আত্মগোপন করেন। এমনকি গাড়ির মালিকের কাছেও বিস্তারিত তথ্য ছিল না। তখন আগের কর্মস্থল থেকে জাতীয় পরিচয়পত্রের একটি ফটোকপি সংগ্রহ করে তাকে শনাক্ত ও গ্রেফতার করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ