Inqilab Logo

শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

গুজব না ছড়াতে এসএমপি’র প্রচারণা, শুক্রবার জুম্মার নামাজে বয়ান

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৪ জুলাই, ২০১৯, ৬:০৬ পিএম

গুজব না ছড়াতে এবং আতঙ্কিত না হতে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে। ‘গুজব ছড়াবেন না, আইন নিজের হাতে তুলে নিবেন না’ প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে নানা তৎপরতা চালাচ্ছে এসএমপি। এর মধ্যে এসএমপির ৬ থানায় মাইকিং, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সচেতনাতামূলক সভা এবং বিভিন্ন প্রচারণা চালানো হচ্ছে। আগামী শুক্রবার বিভিন্ন মসজিদে জুম্মার নামাজের পূর্বে গুজব না ছড়ানোর জন্য সচেতনাতামূলক বয়ান করার জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশন এবং বিভিন্ন মসজিদের ইমামগণদের আহ্বান জানানো হবে বলে জানান এসএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া এন্ড কমিউনিটি সার্ভিস) মোঃ জেদান আল মুসা।

তিনি জানান, সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে “পদ্মা সেতুর জন্য মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে” এই গুজবকে কেন্দ্র করে ছেলে ধরা সন্দেহে গনপিটুনিতে বেশ কয়েক জনের নিহত হবার ঘটনা ঘটেছে। কিছু মানুষ এ গুজবের বিষয়টিকে কাজে লাগিয়ে যাদের সাথে তাদের ব্যক্তিগত শত্রুতা রয়েছে তাদের নাম ও ছবি ব্যবহার করে এ ধরনের গুজব ছড়ানোর জন্য তাদেরকে দায়ী করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিচ্ছেন। কিছু ব্যক্তি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে মর্মে বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করছেন। এটি পুরোপুরি মিথ্যা ও গুজব। এসবে বিভ্রান্ত হয়ে ছেলে ধরা সন্দেহে কাউকে গণপিটুনি দিয়ে আইন নিজের হাতে তুলে না নিতে তিনি আহ্বান জানান।
তিনি আরো বলেন, পদ্মা সেতু নির্মাণ দেশের সর্ববৃহৎ উন্নয়ন প্রকল্প। এ প্রকল্পের সাথে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি জড়িত। একটি মহল এ উন্নয়ন ব্যাহত করার জন্য এ ধরণের গুজব রটিয়ে নগরবাসীর মধ্যে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে, যা গুরুতর অপরাধ। অনেকে না বুঝেই এটি শেয়ার করে অপরাধের অংশীদার হচ্ছেন। এ ধরনের গুজব ছড়িয়ে দেশে অস্থিতিশীলতা তৈরী করা রাষ্ট্র বিরোধী কাজের সামিল এবং গণপিটুনি দিয়ে মৃত্যু ঘটানো গুরুতর ফৌজদারী অপরাধ। যারা এ বিষয়ে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর গুজব ছাড়াচ্ছেন, তাদের খুঁজে বের করতে এবং আইনের আওতায় আনতে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ তৎপর রয়েছে বলেও তিনি জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ