Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪ মাঘ ১৪২৭, ১৪ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

পণ্যের মূল্য কমানোর আহবান বাণিজ্যমন্ত্রীর

ঈদুল আজহা উপলক্ষে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ জুলাই, ২০১৯, ১২:০০ এএম

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি বলেছেন, পবিত্র ঈদ উল আযহা উপলক্ষে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য কমালে ভোক্তারা উপকৃত হবেন। চাল, ডাল, তেল, পিঁয়াজ, রশুন, আদা, গরম, মসলাসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য প্রয়োজনের তুলনায় অনেক বেশি মজুত রয়েছে এবং বাজারে সরবরাহ স্বাভাবিক রয়েছে। কোন পণ্যের সংকট নেই। বাজারে মূল্য বৃদ্ধির কোন কারন বা সম্ভাবনা নেই। সরকার এ বিষয়ের উপর দৃষ্টি রাখছে, সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।
বিগত রমজান মাসে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল রাখায় ব্যবসায়ীদের ধন্যবাদ জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আমদানিকৃত পণ্য যাতে বন্দর থেকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ছাড়করণ করা হয়, এ জন্য বন্দর কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। বন্দর কর্তৃপক্ষ নির্ধারিত সময়ের চেয়ে বেশি সময় দায়িত্ব পালন করছেন। যাতে নিত্যপ্রয়োজনীয় কোন পণ্য কাষ্টমস ছাড়করনের অপেক্ষায় না থাকে। আসন্ন কোরবাণরি পশু পরিবহনের যাতে কোন ধরনের সমস্যা না হয়, সে জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে সতর্ক করা হয়েছে। কোন পণ্যের অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধি পেলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন ট্রেডিং করপোরেশন অফ বাংলাদেশ (টিসিবি) খোলা বাজারে ট্রাক সেলের মাধ্যমে ন্যায্য মূল্যে সে পণ্য বিক্রয়ের ব্যবস্থা করবে।
বাণিজ্যমন্ত্রী গতকাল ঢাকায় বাংলাদেশ সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে পবিত্র ঈদ-উল-আযহার প্রাক্কালে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি যেমন- পিঁয়াজ, রসুন, আদা, গরম মসলা ইত্যাদির মূল্য স্থিতিশীল রাখা এবং গবাদি পশু পরিবহন সংক্রান্ত বিষয়ে অংশীজনদের নিয়ে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করে এ সব কথা বলেন।
বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি বলেন, সরকার ইতোমধ্যে চাল রপ্তানির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য, সরবরাহ ও মজুত পরিস্থিতি তদারকি জোড়দার করার জন্য ঢাকাসহ জেলা-উপজেলা পর্যায়ে প্রশাসনের কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। যাতে কোন পণ্যের কৃত্তিম সংকট না হয় বা মূল্য বৃদ্ধি না পায় সে জন্য সংশ্লিষ্ট সকলে স্বজাগ রয়েছে।
বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মফিজুল ইসলাম, এফবিসিসিআই এর সাবেক প্রেসিডেন্ট এবং অনাস গ্রæপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশনের চেয়ারম্যান জ্যোতির্ময় দত্ত, ট্রেডিং করপোরেশন অফ বাংলাদেশ (টিসিবি) এর চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জাহাঙ্গীর প্রমুখ সভায় উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বাণিজ্যমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ