Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

বজ্রপাতে নিহত ৫ আহত ১১

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ জুলাই, ২০১৯, ১২:০০ এএম

দেশের তিন জেলায় বজ্রপাতে ৫ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জে দুইজন, ঠাকুরগাঁওয়ে দুইজন আর রাজশাহীতে প্রাণ গেছে একজনের। নিহতদের মধ্যে একজন নারীও রয়েছেন। এছাড়াও বজ্রপাতে চার শিক্ষার্থীসহ ১১ জন আহত হয়েছেন। 

ঠাকুরগাঁও : ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চাপাতি গ্রাম ও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার পাতিলাভাষা গ্রামে বজ্রপাতে নারীসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার এ দুর্ঘটনা ঘটে। মৃতরা হলেন- বালিয়াডাঙ্গীর পাতিলাভাষা গ্রামের ইমাম আলীর ছেলে আব্দুল মতিন (৩৮) ও সদর উপজেলার চাপাতি গ্রামের মৃত ঘেরঘেরু বর্মনের স্ত্রী ঘামো বালা (৩৫)। জানা যায়, সকালে পাতিলাভাষা গ্রামে আব্দুল মতিন মাঠে পাট কাটছিলেন। তখন বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। অপরদিকে, চাপাতি গ্রামে ঘামো বালা বাড়ির পাশে বীজতলা থেকে আমনের চারা তুলছিলেন। এসময় বজ্রপাতে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা জানান : চাঁপাইনবাবগঞ্জে বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন শিক্ষার্থীসহ অন্তত আরো দশজন। নিহতরা হলেন, নাচোল উপাজেলার সূর্যপুরের একরামুল হক কালু ও একই উপজেলার বেড়াগ্রামের আরমান আলী।
নাচোল থানার ওসি চৌধুরী জোবায়ের আহমেদ জানান, নিহত দুজনেই দুপুরে বৃষ্টির মধ্যে মাঠে কাজ করছিলেন। এ সময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই মারা যান তারা। এদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বজ্রপাতে আহত হয়েছেন ৪ শিক্ষার্থীসহ আরো দশ জন। তাদের চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
পুঠিয়া (রাজশাহী) উপজেলা সংবাদদাতা জানান : পুঠিয়ায় বজ্রপাতে আব্দুল মান্নান (২৮) নামের এক জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় গুরুতর আহত হয়েছে আকরাম আলী (৩০) অপর একজন। নিহত আব্দুল মান্নান ও গুরুতর আহত আকরাম আলী দুইজন সহধর ভাই। গতকাল বুধবার দুপুর ২টার সময় উপজেলার শিলমাড়িয়া ইউনিয়নের তেবাড়িয়া গ্রামে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, সকালে পাট কাটার জন্য বিলে যায় সহধর দুই ভাই। পাট কাটার এক পর্যায়ে দুপুরের খাবারের জন্য তার জমির আইলে বসে। সে সময় হঠাৎ বিকট শব্দে তাদের উপর বজ্রপাত হলে ঘটনা স্থলে মারা যায় আব্দুল মান্নান। সে সময় নিহত আব্দুল মান্নানের পাশে বসে থাকা তার বড় ভাই আকরাম আলীর বজ্রপাতে শরীর ঝলসে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বজ্রপাত


আরও
আরও পড়ুন