Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

প্রিয়া সাহা যুক্তরাষ্ট্রেই: ভাইরাল ছবিটি মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরে তোলা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ জুলাই, ২০১৯, ৭:৪৩ পিএম

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ইসরায়েল ও বাহরাইনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সাক্ষাৎ ও করমর্দন এবং পেছনে একটি টেবিলে বসা প্রিয়া সাহার ছবিটি যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরেই তোলা।
জানা গেছে, ধর্মীয় স্বাধীনতাকে এগিয়ে নিতে আয়োজিত আন্তর্জাতিক সম্মেলনে আমন্ত্রিত সরকারি ও বেসরকারি প্রতিনিধিদের জন্য গত ১৭ জুলাই সন্ধ্যায় নৈশভোজ আয়োজন করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। সেই নৈশভোজটি হয়েছিল ওয়াশিংটনে পররাষ্ট্র দপ্তরের বেঞ্জামিন ফ্র্যাঙ্কলিন রুমে। এটি স্টেট ডাইনিং রুম হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
ওয়াশিংটনের একটি সূত্র জানিয়েছে, সেদিনের সেই নৈশভোজে বাংলাদেশসহ আমন্ত্রিত ১০৬টি দেশের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। ওই সম্মেলনে বাংলাদেশের সরকারি প্রতিনিধি দলের প্রধান ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। ১৭ জুলাই সন্ধ্যায় সেই নৈশভোজেই ইসরায়েল ও বাহরাইনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা করমর্দন করেছিলেন। সেই অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতরের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া ব্যুরোর প্রিন্সিপাল ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি অ্যালিস ওয়েলস ও যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম জিয়াউদ্দিনের সঙ্গে ছবিও তুলেছিলেন প্রিয়া সাহা। ড. মোমেন তখনও জানতেন না যে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহা ভয়াবহ অভিযােগ করেছেন।

ইসরায়েলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে সেই ছবি ও খবর প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইসরায়েল পত্রিকা। সেই পত্রিকায় তাদের সেই করমর্দন ও কথোপকথনের তারিখ ১৭ জুলাই উল্লেখ রয়েছে। তাদের সাক্ষাৎ যে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর আয়োজিত ধর্মীয় স্বাধীনতা সম্মেলনে হয়েছে তাও উল্লেখ রয়েছে ওই প্রতিবেদনে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রিয়া সাহা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ