Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪ মাঘ ১৪২৭, ১৪ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ভারতীয় ও অর্থমন্ত্রী পাকিস্তানি

ব্রিটেনে ৩১ সদস্যের নতুন মন্ত্রিসভা ঘোষণা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ জুলাই, ২০১৯, ১২:০১ এএম

যুক্তরাজ্যের নতুন সরকারের মন্ত্রিসভার সদস্যদের নাম ঘোষণা করলেন নবনিযুক্ত প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। সাবেক প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মের ক্যাবিনেট বা মন্ত্রিসভার অর্ধেকর বেশি সদস্যই বাদ পড়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার ঘোষিত বরিসের মন্ত্রিসভায় যুক্ত হয়েছেন অনেক নতুন মুখ। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সরিয়ে অর্থমন্ত্রী হিসেবে পাকিস্তানি বংশোদ্ভ‚ত সাজিদ জাভিদকে ও নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে ভারতীয় বংশোদ্ভ‚ত প্রীতি প্যাটেলকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

ব্রেক্সিটের জটিল সঙ্কট থেকে এই সরকারকে সফল করতে নতুন ক্যাবিনেটের সদস্য হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস নিজেও। আগামী ৩১ অক্টোবরের মধ্যে ব্রেক্সিট কার্যকর করায় বরিসের প্রতিজ্ঞা বাস্তবায়ন করতে তিনি বেছে নিয়েছেন ব্রেক্সিট সমর্থক কিছু রাজনীতিবিদকে। ২৯ সদস্যের টেরিজা মের মন্ত্রিসভা থেকে দুইজন বৃদ্ধি পেয়ে ৩১ সদস্যের মন্ত্রিসভা গঠন করলেন বরিস। টেরিজা মন্ত্রিসভার গড় বয়স ছিল ৫১, সেখান থেকে কমে এখনকার সদস্যদের গড় বয়স ৪৮। ৩১ শতাংশ থেকে ২৬ শতাংশে নেমে এসেছে এই ক্যাবিনেটে নারীদের অংশগ্রহণ।

২০১৬-২০১৮ সাল পর্যন্ত ব্রিটিশ সরকারের পররাষ্ট্র সচিব হিসেবে কর্তব্যরত ছিলেন বরিস জনসন নিজেই। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর তিনি এই পদে নিযুক্ত করলেন ডমিনিক রাবকে, যিনি বিশ্ব দরবারের ব্রিটিশ সরকারকে প্রতিনিধিত্ব করবেন। ২০১৬ সালে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে টেরিজা মে যে পদে দায়িত্ব পালন করেছিলেন সেই পদে প্রীতি প্যাটেলকে নিযুক্ত করলেন বরিস সরকার। অভিবাসন ও নাগরিকত্বের মতো যুক্তরাজ্যের সীমার মধ্যের বিষয়গুলো দেখাশুনার দায়িত্ব পালন করবেন প্রীতি। পাকিস্তানি বংশোদ্ভ‚ত সাজিদ জাভিদের স্থলাভিষিক্ত হলেন ভারতীয় বংশোদ্ভ‚ত প্রীতি প্যাটেল। তার পৈতৃক নিবাস ভারতের গুজরাটে। সাজিদ জাভিদকে চ্যান্সেলর হিসাবে মনোনীত করা হয়েছে, যার ফলে তিনি কর এবং সরকারের সর্বোচ্চ ব্যয় নির্ধারণের মতো আর্থিক বিষয়গুলোর দায়িত্ব পালন করবেন। ব্রিটিশ সরকারের বার্ষিক বাজেট ঘোষণা ও প্রণয়নের মতো গুরুত্বপ‚র্ণ দায়িত্ব দেয়া হয়েছে প্রধানমন্ত্রিত্বের দৌড়ে অংশগ্রহণকারী সাজিদকে।

ইইউ থেকে ব্রিটেনকে বের করে নিতে বরিসের পরিকল্পনা বাস্তবায়নে ব্রেক্সিট সচিব হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে স্টিফেন বার্কলেকে। ব্রিটিশ সরকারের নতুন পররাষ্ট্র সচিব ডমিনিক রাব আগে এই দায়িত্ব পালন করছিলেন। টেরিজার ব্রেক্সিট পরিকল্পনার সঙ্গে তাল মেলাতে না পেরে তিনি দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিয়েছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীত্বের দৌড়ে প্রতিযোগিতাকারীদের একজন মাইকেল গোভ ডাচী ল্যান্সেস্টারের চ্যান্সেলর এবং নো-ডিল ব্রেক্সিট পরিকল্পনার দায়িত্ব পেয়েছেন। বরিসের পরিকল্পনা মাফিক মাইকেল নো-ডিল ব্রেক্সিটের প্রস্তুতি নেবেন। প্রতিরক্ষা ও সামরিক বাহিনীর দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন বেন ওয়ালেস। তাকে দেশটির প্রতিরক্ষা সচিব হিসাবে মনোনীত করেছেন বরিস জনসন।

আন্তর্জাতিক বাণিজ্য সচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে লিজ ট্রুসকে। অন্যান্য দেশের সঙ্গে ইউকে কীভাবে বাণিজ্য করবে তার দায়িত্ব নেবেন লিজ। ম্যাট হানকককে যুক্তরাজ্যের নতুন স্বাস্থ্য সচিব হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। দেশটির হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যসেবা তত্ত¡াবধান করবেন ম্যাট। নতুন শিক্ষা সচিব হিসাবে মনোনীত করা হয়েছে গ্যাভিন উইলিয়ামসনকে। তিনি যুক্তরাজ্যের স্কুলগুলির দায়িত্বে থাকবেন। নিকি মরগানকে যুক্তরাজ্যের নতুন সংস্কৃতি সচিব করা হয়েছে। তিনি ব্রিটিশ শিল্প এবং যুক্তরাজ্যের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে রক্ষা সহায়তার দায়িত্ব পালন করবেন। সংস্কৃতিমন্ত্রী হয়েছেন নিকি মরগ্যান, অ্যান্ড্রি লিডসন বাণিজ্যমন্ত্রী, অ্যাম্বার রুড কর্ম ও পেনশনমন্ত্রী এবং জ্যাকোব রিস মগকে হাউস অব কমন্সের প্রধান হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

বরিস দায়িত্ব নিয়ে ১০ ডাউনিং স্ট্রিটের বাইরে দাঁড়িয়ে বলেন, ‘আমি আপনাদের বলতে চাই, সেই সব সমালোচক ভুল। সন্দেহবাতিক, কু-গাওয়া লোকগুলো বুঝবে, তারা কতটা ভুল ছিল।’ ব্রেক্সিট নিয়ে আর সময় নষ্ট নয়- আশ্বাস দিয়ে বরিস বলেন, ‘৯৯ দিনও অপেক্ষা করব না আমরা। অনেক হয়েছে। এবার কঠিন হাতে নেতৃত্ব দেয়া শুরু।’ তার প্রমাণ মিলেছে বরিসের দায়িত্বে আসার পরপরই ১২ জন মন্ত্রী পদত্যাগ করায়। শাসক দল কনজারভেটিভ পার্টির ভেতরে গুঞ্জন, বরিসই তাদের পদত্যাগ করতে বাধ্য করেছেন। এর আগে বরিস প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন শুনেই পদত্যাগ করেছেন আরো ৪ মন্ত্রী।

বরিসের নতুন এই মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠক গতকালই অনুষ্ঠিত হয়। গভীর সঙ্কটে থাকা ব্রিটেনকে মুক্ত করতে বরিসের এই নবনির্বাচিত ৩১ সদস্যের ক্যাবিনেট কতটা সাহায্য করতে পারবে, তাই এখন দেখার বিষয়। সূত্র : বিবিসি, ডন।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঘোষণা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ