Inqilab Logo

শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯ আশ্বিন ১৪২৮, ১৬ সফর ১৪৪৩ হিজরী

বিজয়ী প্রার্থীর সমর্থকদের বাড়িঘরে হামলা-ভাঙচুর মামলা না নিয়ে আসামি ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ৭ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

শরীয়তপুর জেলা সংবাদদাতা

ডামুড্যা উপজেলার দারুল আমান ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের গুয়াখোলা গ্রামে বিজয়ী মেম্বার প্রার্থী আতিক মাদবরের সমর্থকদের বাড়িঘরে হামলা চালিয়েছে পরাজিত প্রার্থী রফিক বেপারীর সমর্থকরা। হামলাকারীরা আতিক মাদবরের সমর্থকদের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, একটি ক্লাবঘর ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এ সময় সন্ত্রাসীরা স্থানীয় ওহাব মাদবরের টিনের প্রাচীর কেটে ও ভেঙে ফেলে। হামলায় মিজানুর রহমান মাদবর (৩৬), রাজন মাদবর (২০), শহিদুল ইসলাম সিকদার (৪০) ও এক নারী আহত হয়। তাদের ডামুড্যা উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে গুরুতর আহত মিজানুর রহমান ও রাজন মাদবরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন চিকিৎসকরা। আহত শহিদুল ইসলাম সিকদার বলেন, আমি একজন সাধারণ গরিব মানুষ। ভ্যান চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করি। আমরা আতিক মেম্বার পাস করার পর তার বাড়িতে মিষ্টি খেতে গেলে পরাজিত মেম্বার রফিক বেপারীর সমর্থক জাহাঙ্গীর বেপারীর নেতৃত্বে ২০-২৫ জন সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমাদের ওপর হামলা করে। আমরা কিছু বুঝে ওঠার আগেই আমাদের ১টি দোকান, ১টি ক্লাবঘর, বেশ কিছু চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর ও তারা চলে যাওয়ার সময় একটি বাড়িতে হামলা চালায়। আমরা বাধা দিতে গেলে তারা রামদা, সেনদা দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে আমাদের ৫-৬ জনকে আহত করে। স্থানীয় লোকজন জানায়, হামলাকারীদের মধ্যে মজিবর তালুকদারকে একটি রামদাসহ এলাকাবাসী আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। রহেস্যজনক কারণে পুলিশ তাকে ছেড়ে দিয়েছে। বিজয়ী মেম্বার আতিকুর রহমান বলেন, আমরা থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ গড়িমসি করে। পরে এলাকার মুরব্বিরা বিষয়টি মীমাংসা করে দেয়ার কথা বললে ৩ দিন পেরিয়ে গেলেও কেউ কোনো খবর রাখেনি। আমরা আসামি ধরে দেয়ার পরও পুলিশ তাকে ছেড়ে দিয়েছে। পরাজিত মেম্বারের ভয়ে আমরা বিজয় মিছিল করিনি। নিজেদের বাড়িতে বসে কথা বলার সময় অতর্কিত আমাদের ওপর এ হামলা চালিয়েছে। এখন একটি মহল সঠিক বিচার না করে উল্টো আমাদের মামলা না করার জন্য চাপ দিচ্ছে। ফলে আমরা চরম আতঙ্কে আছি। এ বিষয়ে ডামুড্যা থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে আমার কাছে কোনো অভিযোগ আসেনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিজয়ী প্রার্থীর সমর্থকদের বাড়িঘরে হামলা-ভাঙচুর মামলা না নিয়ে আসামি ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ
আরও পড়ুন