Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার , ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৭ কার্তিক ১৪২৬, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

বিএনপি’কে ধ্বংসের পায়তারা করছে সরকার

টাঙ্গাইলে কৃষক দলের সম্মেলনে শামসুজ্জামান দুদু

টাঙ্গাইল জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৭ জুলাই, ২০১৯, ৪:৫৯ পিএম

বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান ও কেন্দ্রীয় কৃষক দলের আহ্বায়ক শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, বেগম জিয়াকে অন্যায়ভাবে মিথ্যা মামলা সাজিয়ে কারাগারে বন্দি করে রাখা হয়েছে। তিনি অসুস্থ্য শরীর নিয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। সামান্য কিছু টাকার মামলায় তাকে জেলে দেওয়া হয়েছে। অথচ হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যাংক জালিয়াতি করে, শেয়ার বাজার ধংস করে মন্ত্রীত্ব পেয়েছে।

তিনি আরও বলেন, সরকার নানা কৌশলে দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করে বিএনপি’র উপর দায় চাপিয়ে বিএনপি’কে ধংসের অপচেষ্টা করছে। শনিবার বিকেলে টাঙ্গাইল শিশু একাডেমী মিলনায়তনে জেলা কৃষক দলের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, তারেক রহমান যেন দেশে আসতে না পারে সেজন্য একের পর এক ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দিয়ে তাকে দেশান্তরী করে রাখা হয়েছে। বিএনপি’র সকল অঙ্গসংগঠনকে রাজপথে থেকে আন্দোলনের মাধ্যমে বেগম জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। বর্তমান অবৈধ সরকারের এসব নীল নকশার বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

জেলা কৃষকদলের সভাপতি শ্যামল হোড়ের সভাপতিত্বে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় কৃষক দলের সদস্য সচিব কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিন। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন, জেলা বিএনপি’র সভাপতি কৃষিবিদ সামছুল আলম তোফা।

এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় বিএনপি’র শিশু বিষয়ক সম্পাদক সাবেক এমপি আবুল কালাম আজাদ, কৃষক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মাইনুল ইসলাম, জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট ফরহাদ ইকবালসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতারা।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে জেলা কৃষক দলের সাধারণ সম্পদক মাহমুদুল হক সানু, জেলা যুবদলের আহŸায়ক আশরাফ পাহেলী, জেলা শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক কেএম মনিরুল হকসহ অন্যান্য নের্তৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

টাঙ্গাইল জেলা বিএনপি’র নেতারা বলেন, যে কোন আন্দোলন সংগ্রামে টাঙ্গাইল জেলা বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠন অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। আগামীতে যে কোন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করতে আমরা একতাবদ্ধ হয়ে কাজ করবো। এ জন্য জেলা বিএনপি’কে উত্তর ও দক্ষিণে বিভক্ত করার যে ষড়যন্ত্র চলছে তা বাতিল করার দাবি করেন বক্তারা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ