Inqilab Logo

ঢাকা, রবিবার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৮ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সরকারের ব্যর্থতায় ডেঙ্গু মহামারী আকার ধারণ করেছে: ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ জুলাই, ২০১৯, ৩:১৪ পিএম

সরকার নার্ভাস হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, কোন স্বৈরাচার সরকার, কোন অস্বাভাবিক সরকার বেশি দিন ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারে নাই, এই সরকারও পারবে না। এই সরকার কিন্তু এখন নার্ভাস। তারা নার্ভাস আপনারা বুঝতে পারছেন কিনা? এই যে বাংলাদেশে এখন যত সব ঘটনা ঘটছে, সব ঘটনা এই সরকারের ব্যর্থতার জন্য হচ্ছে। তাদের এই ব্যর্থতা এবং অবহেলার কারণেই ডেঙ্গু জ্বর আজকে মহামারী আকার ধারণ করেছে। এই ব্যর্থতা কেন? যেহেতু এই সরকার জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না সেজন্য। জনগণের সাথে তাদের কোন সম্পৃক্ততা নাই।
সোমবার ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটির সাগর-রুনী মিলনায়তনে জাসাস আয়োজিত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
খন্দকার মোশাররফ বলেন, অসত্য অভিযোগে কারাবন্দি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। কেনো কারাগারে? বর্তমানে অবৈধ প্রধানমন্ত্রী বুঝতে পেরেছিলেন বেগম খালেদা জিয়া বাইরে থাকলে তার একনায়কতন্ত্র সম্ভব না। সেই কারণে বেগম খালেদা জিয়া আজকে কারাগারে।
দেশবাসী জানে প্রধানমন্ত্রী কিছুদিন আগেও লন্ডনে গিয়েছিলেন সেখানে গিয়ে তিনি স্থানীয় লীগ নেতার সাথে টেলিফোনে বলেছিলেন তারেক রহমান যদি বেশি বাড়াবাড়ি করে তাহলে তার মা সারাজীবন কারাগারে থাকবেন। এই কথা বলে তিনি নিজেই প্রমাণ করেছেন এখানে আইন-আদালত নয়, শেখ হাসিনা বেগম খালেদা জিয়াকে জোর করে কারাগারে রেখেছেন। কারণ সেই একটাই ওই যে একনায়কতন্ত্র সৃষ্টি করার জন্য। যাতে করে গণতন্ত্র রক্ষা না হয় সেই জন্য। অতএব দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে যদি মুক্ত করতে হয় তাহলে আন্দোলনের কোন বিকল্প নাই।
ড. মোশাররফ বলেন, সরকার তাদের ব্যর্থতা আড়াল করার জন্য কথায় কথায় সব ঘটনাকে গুজব বলে উড়িয়ে দিচ্ছে। বর্তমান আমাদের সবচেয়ে বড় সমস্যা বন্যা এবং ডেঙ্গু জ্বর দুটো মোকাবেলায় সরকার তাদের ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। ডেঙ্গু জ্বর এটা নতুন কিছু নয় আমিও স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছিলাম তখনো ডেঙ্গু জ্বর হয়েছে কিন্তু, আমাদের পূর্ব প্রস্তুতি ছিল। এই সরকারের স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং দুই মেয়রের ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।
প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে সরকার ব্যবস্থা না নেওয়ায় সরকারের কঠোর সমালোচনা করেন ড: মোশাররফ। তিনি বলেন, এই যে প্রিয়া এত বড় মিথ্যাচার করলো। এর জন্য অবশ্যই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া সরকারের উচিত। প্রথম দিকে সরকারের মন্ত্রীরা ব্যবস্থা নেয়ার কথা বললেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেটি বন্ধ করে দিয়েছেন। স্বাভাবিকভাবেই আমরা যদি বলি এর মধ্যে অবশ্যই কোন রহস্য আছে। প্রধানমন্ত্রী ধামাচাপা দিতে চাচ্ছেন। আয়োজক সংগঠনের সহ-সভাপতি ও ঢাকা মহানগরের আহ্বয়ক মীর সানাউল হকের সভাপতিত্বে সমাবেশে জাসাসের সভাপতি ড. মামুন আহমেদ, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকীস জাহান শিরীন, জাসাসের সহ-সভাপতি লিয়াকত হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক সিবা শানু প্রমুখ বক্তব্য দেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ