Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

অ্যাশেজ-- রয়কে নিয়ে আশাবাদী কোচ

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ জুলাই, ২০১৯, ১২:০০ এএম

 গত কয়েক বছর যাবত দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছে ইংল্যান্ডের টপ অর্ডার। কিন্তু সেটা একদিনের ক্রিকেটে। কিন্তু টেস্টে ছয় সাত বছর ধরে দলের টপ অর্ডার নড়বড়ে। কোচ ট্রেভর বেলিসও তা স্বীকার করেছেন। সঙ্গে এটাও জানিয়েছেন, আসন্ন অ্যাশেজে এই সমস্যা থাকবে না। বিশ্বকাপ জয়ী ব্যাটসম্যান জেসন রয় এক্ষেত্রে ভূমিকা রাখবেন বলে আশা করছিলেন তিনি।

২০১২ সালে এন্ড্রু স্ট্রসের অবসরের পর গত বছর অ্যালিস্টার কুক টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়ার আগ পর্যন্ত প্রায় এক ডজন ওপেনিং ব্যাটসম্যানকে পরীক্ষা করেছে ইংল্যান্ড। এ ছাড়াও বেলিসের চার বছরে ইংল্যান্ড দলের সামনে আরেকটি প্রশ্ন ছিল তিন নম্বরে কোন খেলোয়াড়ের ব্যাটিং করা উচিত। ১ আগস্ট এজবাস্টনে শুরু হতে যাওয়া অ্যাশেজ সিরিজ শেষে ইংলিশ দলের কোচের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন অস্ট্রেলিয়ান বেলিস।

লর্ডসে গত সপ্তাহে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের প্রথম ইনিংসে মাত্র ৮৫ রানে অলআউট হয়ে যাওয়ায় ইংল্যান্ডের টপ অর্ডারের দুর্বলতা আরো বেশিভাবে ফুটে উঠেছে। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ডের স্পেশালিস্ট ব্যাটসম্যানদের দৃঢ়তার পর বোলারদের নৈপুণ্যে ১৪৩ রানে জয় পায় ইংল্যান্ড।

ইংল্যান্ডের টপ অর্ডার দলের বড় সমস্যা কিনা জানতে চাইলে বেলিস বলেন, ‘সেটা খুঁজে নিতে আপনাকে আইনস্টাইন হতে হবে না।’ অস্ট্রেলিয়ান এ কোচ আরো বলেন, ‘গত ছয় সাত বছর যাবতই এ সমস্যা বিরাজ করছে। তবে চার বছর আগে এটা আমাদের অ্যাশেজ সিরিজ জয় থেকে থামিয়ে রাখতে পারেনি।’

প্রথমবারের মত ইংল্যান্ডকে বিশ্বকাপ শিরোপা এনে দিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা রয় আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ইনিংসে করেন ৭২ রান। ইংলিশ কাউন্টিতে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট সারের হয়ে মিডল অর্ডারে খেলা ২৮ বছর বয়সী রয় নতুন বলের মুভমেন্টের সাথে মানিয়ে নিতে কতটা সক্ষম হবেন সে বিষয়ে প্রশ্ন আছে। বেলিস বলেন, ‘যে কোন অভিষিক্ত খেলোয়াড়ের মতই তাকে কিছুটা নার্ভাস মনে হয়েছে। তবে নিজের প্রথম টেস্টেই ৭০’র বেশি রান করাটা ভাল কিছু।’ তিনি আরো বলেন, ‘গত কয়েক বছর যাবত সিমিত ওভারের ক্রিকেটে ভাল করা সত্তে¡ও এ ধরনের উইকেটে তার বিষয়ে আমার কিছু সন্দেহ ছিল। তবে সে টেস্টেও ভাল করতে পারবে বলেই আমি বিশ্বাস করি।’ ‘আমরা চেয়েছিলাম মাঠে নেমে সে তার নিজের স্বাভাবিক খেলাটা খেলুক। তবে লাল বলে আপনাকে কিছুটা বেশি সিলেক্টিভ হতে হবে। আপনার নিজের থেকে সচেতন হতে হবে। থিতু না হওয়া পর্যন্ত আমি কভার ড্রাইভ মারতে পারবেন না।’

টেস্ট ক্রিকেটে সাধারনত দলের সেরা ব্যাটসম্যানরা তিন নম্বরে ব্যাট করে থাকে। তবে ইংল্যান্ড দলের সেরা ব্যাটসম্যান অধিনায়ক জো রুট চার নম্বরে ব্যাটিং করাটা পছন্দ করেন। বেলিস বলেন, ‘আমার মনের অবস্থা জো জানে। গত কয়েক বছর যাবতই আমার চিন্তা হচ্ছে তাকে তিন নম্বরে ব্যাটিং করানো। তবে সে অধিনায়ক এবং চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটা সে নেবে।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন