Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১ হিজরী

কুড়িগ্রামে বন্যার পানি নেমে গেলেও বিধ্বস্ত বাড়িঘর নিয়ে বিপাকে বানভাসীরা

বন্যায় এ পর্যন্ত ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে

কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ জুলাই, ২০১৯, ৯:৫৯ এএম

কুড়িগ্রামে দু’সপ্তাহের উপর বন্যার পানি স্থায়ী হওয়ার কারণে বন্যা দুর্গতদের বাড়ীঘরের বেহাল অবস্থা হয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় আশ্রয় নেয়া পরিবারগুলো বাড়ীতে ফিরলেও বিধ্বস্ত ঘরবাড়ি নিয়ে বিপাকে পরেছে। বন্যার প্রবল স্রোতে ভেসে নিয়ে গেছে বাড়ীঘর, নলকুপ, লেট্রিনসহ হাঁস-মুরগি। এখন এসব মেরামতে বাড়তি ব্যয় সংসারে বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে।
জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীন জানান, বন্যায় এ পর্যন্ত ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে উলিপুর উপজেলায় ৯শিশুসহ১১জন, চিলমারীতে ৭জন শিশু, রেীমারীতে ১জন এবং কুড়িগ্রাম সদরে ২জন রয়েছে।
টানা বৃষ্টিপাত আর পাহাড়ী ঢল কারণে ৯জুলাই থেকে ২৮জুলাই পর্যন্ত টানা বিশ দিনের বন্যায় জেলার ৯টি উপজেলার ৬০টি ইউনিয়নের ৮৯৪টি গ্রামে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। বন্যা কবলিত হয়েছে ২লাখ ৩৮হাজার ৬৭২টি পরিবার। দীর্ঘস্থায়ী বন্যায় ২ লাখ ৩৮ হাজার ৬৭২টি বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বন্যার পানি বৃদ্ধি এবং কমার কারণে নদীর তীব্র ভাঙন শুরু হয়েছে। ক্ষতি কিভাবে সামলিয়ে উঠবেন বানভাসীরা তা নিয়েই দুশ্চিন্তায় সময় পার করছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বন্যা পরিস্থিতি


আরও
আরও পড়ুন