Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

নেছারাবাদে সন্ধ্যা নদীর মাটি যাচ্ছে ইটভাটায়

ভ্রাম্যমান আদালতে তিন ভাটা মালিককে দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা

নেছারাবাদ(পিরোজপুর)উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১ আগস্ট, ২০১৯, ৩:৫৩ পিএম

নেছারাবাদ উপজেলার সন্ধ্যা নদীর মাটি যাচ্ছে উপজেলার ইটভাটাগুলোতে। নদী থেকে অপরিকল্পিতভাবে মাটি কেটে ইট বানাতে ব্যবহারে দিন দিন বড় আকারে নদী ভাঙনের মুখে পড়ছে নদী বেষ্টিত এলাকাগুলো। আর এতে বেশি আতঙ্কে রয়েছে নদী তীরবর্তী এলাকাগুলো বিদ্যালয়,হাটবাজার ও বসবাড়ী। নদী থেকে অবৈধভাবে মাটি কাটার অপরাধে তিনটি ইটভাটা মালিককে ৫০ হাজার টাকা করে মোট দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই আদালত পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার(ভূমি) মো. মেহেদী হাছান। অবৈধভাবে মাটিকাটা ট্রলার আটকে নেতৃত্ব দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার আব্দুল্লাহ আল মামুন বাবু ।

জরিমানার দায়ে দন্ডিত হওয়া তিনটি ইটভাটা হল এলবিএফ,সততা ও মর্ডান ব্রীক ফিল্ড। এ সময় আদালত আটককৃত ১৪টি ট্রলারের সাথে আটক হওয়া ৭১জন হতদরিদ্র শ্রমিককে মানবিক কারনে ছেড়ে দেন। এছাড়াও ১৪টি ট্রলারে থাকা মাটি ভাটা কর্তৃপক্ষের নিজ খরচে বিভিন্ন বিদ্যালয়ের মাঠ ভরাটে দিয়ে আসবে বলে নির্দেশ দেয়া হয়।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় সেখানে উপস্থিত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার আব্দুল্লাহ আল মামুন বাবু বলেন, আইন অমান্য করে নদীর তীর থেকে মাটি কেটে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট করার অপরাধে মাটি ও বালু ব্যবস্থাপনা আইন- ২০১০ অনুযায়ি ওই সাজা প্রদান করা হয়েছে।

জানাযায়, ওই ভাটা তিনটির মালিকরা দীর্ঘদিন যাবত উপজেলার ভাঙ্গনকবলিত সন্ধ্যা নদীর পাড়ের বিভিন্ন জায়গা থেকে অবৈধভাবে মাটি কেটে ভাটায় নিয়ে ইট তৈরী করে আসছিল। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর রাতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার আব্দুল্লাহ আল মামুন বাবুর নেতৃত্বে সমদেয়কাঠির বিনাকপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৪টি মাটি ভর্তি ট্রলারসহ ট্রলারে থাকা মাটি কাটা মোট ৭৭ জন শ্রমিককে আটক করা হয়। পরে ভাটা কর্তৃপক্ষ খবর পেয়ে ছুটে আসলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ওই তিনটি ভাটাকে মোট দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়।###

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভ্রাম্যমান আদালত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ