Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ০৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৭ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

দৈনন্দিন জীবনে ইসলাম

| প্রকাশের সময় : ২ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০২ এএম

প্র:- দু’জন মিলে জামাআত আদায় করলে কিভাবে দাঁড়াতে হবে?
উ:- মুক্তাদী ইমামের ডান পাশে সামান্য পিছনে দাঁড়াবে।
প্র:- দু’জন লোক জামাআত শুরু করার পর আরো লোক এলে কী করতে হবে?
উ:- প্রথম মুক্তাদী আস্তে আস্তে পিছনে সরে আসবে। অথবা আগন্তুক মুসল্লীরা তাকে হাত দিয়ে পিছনে এনে কাতার বাঁধবে। মুক্তাদীরা যদি কোন কারণে পিছনে না যায়, তাহলে ইমাম নিজেই এক কদম আগে বেড়ে প্রথম মুক্তাদীর ডানে ও বামে জায়গা করে দিবে যাতে তারা একত্রে কাতার করতে পারে।

প্র:- মুক্তাদীদের অপছন্দ সত্তে¡ও কোন ইমামের ইমামতি করা কেমন?
উ:- ধর্মীয় কোন কারণে কোন ইমামের প্রতি অসন্তুষ্টি বা অনাস্থা সৃষ্টি হলে, তার জন্যে ইমামতি করা মাকরূহে তাহরীমী। তবে সামাজিক, রাজনৈতিক বা বৈষয়িক কারণে ইমামের প্রতি অসন্তুষ্টি গ্রহণযোগ্য নয়।
প্র:- যদি কোন নামাযের শেষে মুক্তাদীগণ বলেন, তিন রাকাত; আর ইমাম বলেন, চার রাকাত হয়েছে, তবে কার কথা গ্রহণযোগ্য হবে?
উ:- এমতাবস্থায় ইমাম যদি নিশ্চিতভাবে বলতে পারেন যে, চার রাকাতই হয়েছে, তবে তার কথাই গৃহীত হবে। আর যদি তার মধ্যে কিছুটা সন্দেহ-সংশয় থাকে যে, চার না তিন, তাহলে মুক্তাদীগণের মতামতের ভিত্তিতে পুনরায় চার রাকাত নামায জামাআতের সাথে আদায় করে ফেলতে হবে।

প্র:- এক্ষেত্রে মুক্তাদীগণ যদি বিভক্ত হয়ে যান। কিছুসংখ্যক বলেন-চার রাকাত আবার কিছুসংখ্যক বলেন, তিন রাকাত হয়েছে; তাহলে কী করতে হবে?
উ:- এমতাবস্থায় যাদের সংগে ইমাম একমত হবেন, তাদের মতামতকে প্রাধান্য দেয়া হবে। চাই সেভাগে একজনই হোক না কেন। (আলমগীরী)



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দৈনন্দিন জীবনে

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৮ জানুয়ারি, ২০১৯
১৫ নভেম্বর, ২০১৬
১৩ নভেম্বর, ২০১৬
৮ নভেম্বর, ২০১৬
৬ নভেম্বর, ২০১৬
১ নভেম্বর, ২০১৬
৩০ অক্টোবর, ২০১৬
২৫ অক্টোবর, ২০১৬
২৩ অক্টোবর, ২০১৬
১৮ অক্টোবর, ২০১৬
১৬ অক্টোবর, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন