Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী

ডেঙ্গু : জরুরি অবস্থা ঘোষণার দাবি মির্জা ফখরুলের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০০ এএম

ডেঙ্গু নিয়ে সরকারকে ‘রাজনীতি’ না করে পরিস্থিতি মোকাবেলায় জরুরি অবস্থা ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শুক্রবার ধানমন্ডির ল্যাবএইডে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত কয়েকজন রোগীকে দেখে আসার পর তিনি এই আহ্বান জানান।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এখানে কয়েকজন ডেঙ্গু রোগীকে দেখলাম। সারাদেশেই এটা ছড়িয়ে পড়েছে। আমরা বিশেষজ্ঞদের কাছে শুনতে পারছি এটা কনটিনিউ করবে। এ কারণে একটা জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে জরুরি অবস্থার ভিত্তিতে সম্মিলিতভাবেই এর মোকাবেলা করা দরকার। আমরা মনে করি, এখন অন্য রাজনীতি না করে দ্রæত মানুষকে বাঁচানোর জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক।

মশার ওষুধ বিদেশ থেকে জরুরি ভিত্তিতে আনার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে মির্জা ফখরুল বলেন, আপনারা একটা জিনিস খেয়াল করলে দেখবেন যে, বাংলাদেশ কিন্তু এখন সরকার চালায় না। মানে প্রশাসন কিংবা বিমান মন্ত্রণালয় বাংলাদেশ চালাচ্ছে না। বাংলাদেশ চালাচ্ছে এখন বিচার বিভাগ। আদালতের হুকুম হয় তারপরে কথা-বার্তা হয়, নড়াচড়া করে এসব হয়ে চলে অর্থাৎ ইনফেক্ট গভর্নমেন্ট ইজ কমপ্লিটলি ফেইল্ড। অন্যান্য ক্ষেত্রে বটেই স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে, ডেঙ্গু প্রতিরোধ করার ক্ষেত্রে তারা সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। আমরা মনে করি, ওদিকে না গিয়ে অবিলম্বে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে জরুরি ভিত্তিতে এসব ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত। কিছুটা যুদ্ধকালীন অবস্থার মতো করা দরকার। কারণ এখন সময় খুব কম।

তিনি বলেন, প্রত্যেকটা পরিবার এখন দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হয়ে আছে। বিশেষ করে শিশুদেরকে নিয়ে। এখন দেখে এলাম তারা অনেকেই বেশ সঙ্কটাপন্ন অবস্থায় আছে। আমার মনে হয়, সরকারের উচিত হবে কালবিলম্ব না করে সংশ্লিষ্ট সবার কাছ থেকে এবং আমাদের যারা চিকিৎসক আছেন, তাদের সবার কাছ থেকে পরামর্শ নিয়ে, সবার সহযোগিতা নিয়ে কাজ করা।

বিকালে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ধানমন্ডিতে ল্যাবএইডে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য অধ্যাপক ফরহাদ হালিম ডোনারসহ কয়েকজন রোগীকে দেখতে যান বিএনপি মহাসচিব। তিনি চিকিৎসকদের সাথে তাদের সর্বশেষ অবস্থার খোঁজখবর নেন।

এ সময় দলের চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য অধ্যাপক এ কে এম আজিজুল হক, ড্যাবের অধ্যাপক হারুন আল রশিদ, অধ্যাপক আবদুস সালাম, ডা. আবদুস সেলিম, ডা. জহিরুল ইসলাম সাকিল, ডা. এ টি এম ফরিদ, ডা. শাহ আমানউল্লাহ, ডা. পারভেজ রেজা কাকন, ডা. মো. আবু জাফর, বিএনপি চেয়ারপার্সনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডেঙ্গু


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ