Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

সাদুল্লাপুরে ছুরির আঘাতে মহিলা দর্জি কর্মী গুরুতর জখম

সাদুল্লাপুর (গাইবান্ধা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ আগস্ট, ২০১৯, ৩:৪০ পিএম

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে তালাকপ্রাপ্ত স্বামীর ছুরিকাঘাতে গতকাল শনিবার সকালে দর্জি কর্মী গুরুতর জখম হয়েছে। জানা যায়, উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের হামিন্দপুর গ্রামের বিদ্যুৎ সরকারের মেয়ে রাশেদা (৩৫)।সে সাদূল্লাপুর বাজারে ফুটপাতে দর্জির কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে।

এদিকে বিগত বছরের কোন এক সময় হিন্দু ধর্ম থেকে ইসলাম ধর্মগ্রহনকারী সদর ইউনিয়নের জয়েনপুর গ্রামের (কাজল সাহা) বর্তমান নাম আব্দুর রহিমের সঙ্গে রাশেদার বিবাহ বন্ধন হয়। দুজনেই বাজারে ব্যবসা করেন।সম্প্রতি সময়ে পারিবারিক কলহের জের ধরে রাশেদা রহিমকে তালাক দেয়।এরই জের ধরে তাকে শনিবার সকারে বাজারে আসা মাএই ছুরি দিয়ে পেট কেটে দেয়।স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। অধিক রক্তক্ষরনের ফলে শারিরীক অবস্থার অবনতি হওয়ায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় কর্তব্যরত চিকিৎসকরা।ঘাতক স্বামী পালিয়ে যাওয়ার সময় এ্যাম্বুলেন্সে থাকা ব্যক্তিরা দেখলে তাকে আটক করে পীরগঞ্জ থানা পুলিশের হাতে দেয়।

সাদুল্লাপুর থানা পুলিশ ইনচার্জ আরশেদুল হক বলেন,আসামী পীরগঞ্জ থানায় আটক আছে তাকে নিয়ে আসা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গাইবান্ধা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ