Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ০৮ সফর ১৪৪২ হিজরী

রাজধানীর পাঁচ হাসপাতালে ডেঙ্গু পরিস্থিতি পরিদর্শন স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ আগস্ট, ২০১৯, ৬:১৯ পিএম

হাসপাতালগুলোতে সরেজমিনে ডেঙ্গু পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রী জাহিদ মালেক। শনিবার (৩ আগষ্ট) দিনব্যাপী রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা মেডিকেল কলেজ, সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল, শেখ হাসিনা বার্ণ ইন্সটিটিউট ও ঢাকা শিশু হাসপাতালে ডেঙ্গু পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম,স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ সহ অন্যান্য কর্মকর্তারা এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সাথে ছিলেন।

হাসপাতালগুলো পরিদর্শন শেষে বিভিন্ন মিডিয়া থেকে আগত সাংবাদিকদের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, ডেঙ্গু চিকিৎসা নিয়ে বাংলাদেশে বিশ্বের যে কোন দেশের তুলনায় সবচেয়ে কম রোগীর প্রানহানী ঘটেছে। স্বাস্থ্য সেবা খাতের সাথে সংশ্লিষ্ট ডাক্তার, নার্স থেকে সকলেই এই কৃতিত্বের দাবীদার। এ সময় হাসপাতালগুলো ঘুরে মন্ত্রী অসুস্থ রোগীদের সাথে কথা বলেন, তাদেরকে সাহস দেন।

জাহিদ মালেক রোগীদের সাহস দিয়ে বলেন, গোটা বিশ্বের চিকিৎসা সেবায় বাংলাদেশ উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। কারন ডেঙ্গু রোগে একমাত্র বাংলাদেশেই সবচেয়ে কম প্রাণহানি ঘটেছে এবং সম্পূর্ণ বিনা মূল্যে ডেঙ্গু রোগের চিকিৎসা সেবা, রক্ত পরীক্ষার উদোগ নেয়া হয়েছে। এরকম সুযোগ আর কোথাও নাই। এর সবকিছুই সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঠিক দিকনির্দেশনার জন্য।

অনেক বেশি অহেতুক টেস্ট করা নিয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ডেঙ্গু না হয়েও শুধু সন্দেহের বসেই এখন মানুষ ডেঙ্গু টেস্ট করাচ্ছে কেবল আতংকের কারনে। গত ২৪ ঘন্টায় ঢাকা মেডিকেলে প্রায় ৬০০ জন ডেঙ্গু রোগীর টেস্ট করালে তাদের মধ্যে মাত্র ১৬ জনের ডেঙ্গু পজিটিভ ধরা পরে। অন্যদিকে ঢাকা শিশু হাসপাতালে গত ২৪ ঘন্টায় ১৬৩ জন ডেঙ্গু টেস্ট করালেও ডেঙ্গু পজিটিভ ধরা পরেছে কেবলমাত্র ৭ জনের। সুতরাং ডেঙ্গু রোগ ধীরে ধীরে হ্রাস পাচ্ছে একথা আমরা পরিসংখ্যান অনুযায়ীই বলতে পারি।

ডেঙ্গু রোগীর পর্যাপ্ত বেড না থাকা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান,আজকের ৫ টি হাসপাতাল পরিদর্শন শেষে দেখতে পেলাম যদি সামনে প্রয়োজন হয় তাহলে ‘শেখ হাসিনা বার্ণ ইউনিটে’ আরো নতুন ১ হাজার বেড, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ১০০০ বেড, শিশু হাসপাতালেও বেশকিছু নতুন বেড স্থাপন করা যাবে। ইতোমধ্যেই মিটফোর্ডে ১০০,বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে নতুন ২০০ বেড বৃদ্ধি করা হয়েছে।

এ সময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর আবুল কালাম আজাদ বলেন, ডেঙ্গু পরীক্ষার কিটের সংকট হলে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের কন্ট্রোল রুমে যোগাযোগ করা যেতে পারে। যার মোবাইল নং ০১৭০৮৫০৬০৪৭।



 

Show all comments
  • মোঃ আব্দুল হাকিম ৩ আগস্ট, ২০১৯, ১০:১৬ পিএম says : 0
    যারা পরীক্ষা নিরীক্ষা করে মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ল্যাব) দের নিয়োগ চাই।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ