Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫, ১৩ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স বৃদ্ধির দাবিতে শাহবাগে বিক্ষোভ

প্রকাশের সময় : ৩০ জানুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স বাড়িয়ে ৩৫ বছর করার দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে কয়েকশ’ সাধারণ শিক্ষার্থী। গতকাল (শুক্রবার) বিকেলে সাধারণ ছাত্রছাত্রী পরিষদের ব্যানারে বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধে সেখানে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। পুলিশ এ সময় ৫ জনকে আটক করে। পুলিশের বাধায় পরে শিক্ষার্থীরা সড়ক ছেড়ে জাতীয় যাদুঘরের সামনে রাস্তায় অবস্থান নেয়।
বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পক্ষে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদের ব্যানারে কয়েকশ’ শিক্ষার্থী শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নেয়। অবসরের বয়স বাড়ে প্রবেশের কেন নয়Ñ এ যুক্তিতে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভের ডাক দেয়। বিক্ষোভকারীদের দাবি, সরকার সরকারি চাকরিতে অবসরের বয়সসীমা বাড়িয়ে ৫৭ বছর থেকে ৫৯ বছর করেছে। মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ৬০ বছর করা হয়েছে। শিক্ষকদের ৬৫ বছর ও বিচারপতিদের অবসরের বয়স ৬৭ বছর করা হয়েছে। অথচ সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা সেই ৩০ বছরই রাখা হয়েছে। এতে দিন দিন বেকারের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই তারা সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩০ থেকে বাড়িয়ে ৩৫ বছর করার দাবি জানান। তারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সেশন জটের কারণে একজন শিক্ষার্থীর লেখাপড়া শেষ করতেই চাকরিতে ঢোকার বয়স ফুরিয়ে আসে। এদিকে বিকেল সাড়ে ৩টার পর বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরা শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নেয়ায় শাহবাগ মোড় থেকে চার দিকে যাওয়ার পথেই যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সৃষ্টি হয় তীব্র যানজট। চরম ভোগান্তির শিকার হন নগরবাসী। পুলিশ প্রথমে বুঝিয়ে বিক্ষোভকারীদের রাস্তা থেকে সরিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু আধা ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন পুলিশ কর্মকর্তারা। পরে বিক্ষোভকারিদের ওপর মৃদু লাঠিচার্জ করে তাদের সরিয়ে দেয় পুলিশ। এ সময় আন্দোলনরত অন্তত ৫ জনকে আটক করা হয়। পুলিশ বেপরোয়া হয়ে উঠলে বিক্ষোভকারিরা জাতীয় জাদুঘরের সামনে অবস্থান নেয়। প্রায় ঘণ্টাখানেক পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। ওসি আবু বকর সিদ্দিক গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছি। যান চলাচল স্বাভাবিক হয়ে এসেছে। গতকাল সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত যাদুঘরের সামনে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অবস্থান ও বিক্ষোভ অব্যাহত ছিল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।