Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী

দেশকে একটি ধর্মশালায় পরিণত হতে দিতে পারি না : চৌহান

সমগ্র ভারতেই এনআরসি চালু হবে : বিজেপি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০২ এএম

শুধু আসামেই নয়, ভারতের সব রাজ্যেই জাতীয় নাগরিকপঞ্জি চালু করার কথা ফের জানিয়েছে বিজেপি। বিজেপি নেতা তথা মধ্যপ্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান শুক্রবার গুয়াহাটিতে সাংবাদিকদের বলেছেন, অবৈধ অভিবাসীদের জন্য ভারত কোনো ‘ধর্মশালা’ হতে পারে না। তাই এনআরসি কেবল আসামের জন্য নয়, এটি পুরো দেশের জন্যই আবশ্যক এবং আমরা সেটাও করবো। চৌহানের মতে, আমরা দেশকে এমন একটি ধর্মশালায় পরিণত হতে দিতে পারি না, যাতে যে কেউ অবৈধভাবে দেশে প্রবেশ করতে পারে এবং এখানেই সব সময়ের জন্য থেকে যেতে পারে। আমরা এর পরিবর্তন করবো। আসামের জন্য আমরা একটি নির্ভুল এনআরসি প্রকাশ করে সুপ্রিম কোর্টের পরবর্তী নির্দেশের অপেক্ষায় থাকবো। বিজেপি নেতাদের মতে, বাংলাদেশ থেকে আসামে এসে অবৈধভাবে বসবাস করা মানুষকে দেশ থেকে বিতাড়িত করা সম্ভব একমাত্র দেশের বৈধ নাগরিকদের জাতীয়পঞ্জি তৈরির মাধ্যমেই। এদিকে সুপ্রিম কোর্টের মতে সংবেদনশীল তথ্য গত বৃহস্পতিবার আসাম বিধানসভায় প্রকাশ করা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। অবশ্য রাজ্য বিধানসভায় এনআরসি সংবেদনশীল খসড়ার তথ্য প্রকাশের সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়ে চৌহান বলেছেন, সরকার যা কিছু করেছে, তা তারা সঠিকভাবে চিন্তা করেই করেছে এবং তারপরেই এগিয়েছে। এদিকে বিরোধী দল কংগ্রেস নাগরিকপঞ্জীকরণের গোটা বিষয়টি নিয়ে তত্ত¡াবধায়ক সুপ্রিম কোর্টকে একটি চিঠি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাদের অভিযোগ, নাগরিকপঞ্জিকরণের বিষয়ে শীর্ষ আদালতের নির্দেশ মতো যে গোপনীয়তা অবলম্বনের প্রয়োজন ছিল তা লঙ্ঘন করেছে বিজেপি। শুধু তাই নয়, রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে এনআরসির জেলাভিত্তিক খসড়া তালিকাও ফাঁস করে দিয়েছে শাসক দল- এমনটাও অভিযোগ কংগ্রেসের। অন্যদিকে, অল অসম স্টুডেন্টস ইউনিয়নের সম্পাদক লুরিনজ্যোতি গগৈ বলেছেন, এটি রাজনৈতিক চালাকি ছাড়া আর কিছুই নয়। বিজেপি রাজনৈতিক সুবিধা অর্জন এবং নিজেদের ভোট ব্যাংককে অক্ষত রাখতেই এসব করছে। এনডিটিভি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিজেপি

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
১৬ আগস্ট, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ