Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

সিনেমাকেও হার মানিয়েছে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০১ এএম

জমস বার্সবি ও অ্যামি গাফনির মধ্যে অদ্ভ‚ত মিল। ইংল্যান্ডের ল্যাঙ্কাশায়ারের একই হাসপাতালে, একই দিন জন্ম তাদের। দু’জনেই আবার যমজ হিসেবে জন্মেছিলেন। ২৩ বছরের মাথায় ওই যুগল বসলেন বিয়ে পিঁড়িতে। দম্পতি হিসেবে তাদের একসঙ্গে জীবন শুরুর এই কাহিনি সিনেমার দারুণ রোমান্টিক গল্পকেও হার মানিয়েছে।
বার্সবি ও গাফনির জন্ম ১৯৯৫ সালে ল্যাঙ্কাশায়ারের ব্ল্যাকবার্নের কুইন্স পার্ক হাসপাতালে সাড়ে পাঁচ ঘণ্টার আগ-পিছ করে। বেড়ে ওঠা ক্লিদারোতে। পড়েছেন একই বিদ্যালয়ে। একই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়েছেন চিকিৎসাশাস্ত্রে। এই যুগল জুনিয়র চিকিৎসক হিসেবে ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসে (এনএইচএস) একসঙ্গে কাজও শুরু করতে যাচ্ছেন। তবে ১০ বছর বয়সের আগে বার্সবি ও গাফনি একে অপরকে চিনতেন না। এরপর থেকে তাদের মধ্যে ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে এবং শুরু হয় ঘোরাঘুরি ও একান্তে সময় কাটানো। সম্প্রতি সলসবেরির সেন্ট পিটার চার্চে গিয়ে তারা বিয়ে করেন। বর্তমানে স্লোভেনিয়ায় মধুচন্দ্রিমা উদ্যাপন করছেন তারা।

এই অনন্য সম্পর্কের শুরুর বিষয়ে গাফনি বলেন, ‘আটলান্টিক মহাসাগরের দ্বীপ লানজারোতে বেড়াতে গিয়ে বার্সবিই তাঁকে ভালোবাসার প্রস্তাব দেন। তাতেই রাজি হয়ে যান তিনি।’ প্রস্তাবের বিষয়ে গাফনি আরও বলেন, ‘এটা ছিল সত্যিই সুন্দর। সে এক হাঁটু গেড়ে আমাকে ভালোবাসার প্রস্তাব দেয়। তখন এমন পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছিল যে না বলার কোনো উপায় ছিল না। আমি খুবই খুশি হয়েছিলাম।’ সূত্র : নিউ ইয়র্ক পোস্ট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ