Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

ব্যাডমিন্টন ক্যাম্পে কোচ নিয়ে নাটক!

অব্যাহতি চাইলেন রাজু

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০১৯, ৮:৪১ পিএম

নেপাল সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসকে সামনে রেখে বাংলাদেশ জাতীয় ব্যাডমিন্টন দলের (নারী) ক্যাম্পে কোচ নিয়ে নাটক মঞ্চস্থ হচ্ছে গেল চার দিন ধরেই। যা বর্তমানে দেশের ক্রীড়াঙ্গনে একটি গরম খবর।

ক’দিন আগে বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশন মনোনীত কোচদ্বয়ের তত্বাবধানে ক্যাম্প না করার হুমকি দিয়েছিলেন দেশসেরা দুই নারী শাটলার শাপলা আক্তার ও এলিনা সুলতানা। কোচ মারুফ আলম ও গৌতম চন্দ্র পালের বিরুদ্ধে অনভিজ্ঞতার অভিযোগ তুলে তাদের অধীনে ক্যাম্প করবেন না বলে ২ আগস্ট সাফ জানিয়ে দেন শাপলা-এলিনা। ফলে এর একদিন পরে কোচ পরিবর্তের সিদ্ধান্ত নিতে হয় ফেডারেশনকে। দেশসেরা দুই নারী শাটলারের মতামত অনুযায়ী এবং ফেডারেশন সভাপতির নির্দেশক্রমে এলিনার স্বামী এনায়েত উল্লাহ খান এবং শাপলার স্বামী অহিদুজ্জামান রাজুকে জাতীয় নারী দলের কোচ হিসেবে মনোনীত করা হয়। ৪ আগস্ট নারী ব্যাডমিন্টন দলের নতুন দুই কোচ মনোনয়ন পেলেও ২৪ ঘন্টা না পেরুতেই পদ থেকে অব্যাহতি চাইলেন কোচ অহিদুজ্জামান রাজু। নিজের ব্যবসা সংক্রান্ত কাজের চাপ দেখিয়ে সোমবার ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন বাহার বরাবর এই অব্যাহতি পত্র দেন তিনি। সাধারণ সম্পাদক উপস্থিত না থাকায় রাজুর অব্যহতি পত্রটি গ্রহণ করেন ক্যাম্প কমান্ডার কাজী নুর মোহাম্মদ।

অব্যাহতি প্রসঙ্গে রাজু বলেন, ‘শাপলার স্বামী হিসেবে কোচ থাকাটা আমার জন্য বিব্রতকর। যদিও শাটলার হিসেবে শাপলার হাতেখড়ি আমার কাছেই। তারপরও একজন স্বামী তার স্ত্রীর কোচ- এমনটা মুখরোচক খবর ছাড়া অন্য কিছুই নয়। অনেকের কাছেই ব্যাপারটা আপত্তিকর। তাছাড়া ব্যবসা সংক্রান্ত কাজ নিয়ে আমি প্রায় সব সময়ই ব্যস্ত থাকি। পাঁচ মাসের জন্য কোচের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে আমার ব্যবসার কাজে অনেক সমস্যা হবে। তাই আমি কোচের দায়িত্ব পালন করতে পারবো না। এ কারণেই অব্যাহতি পত্র দিয়েছি। তিনি যোগ করেন,‘আমি না থাকলেও সমস্যা হওয়ার কথা নয়। নারী দলের কোচ হিসেবে এনায়েত এবং পুরুষ দলের কোচ মারুফ ও গৌতম চন্দ্রতো রয়েছেনই। তারা সঠিকভাবেই নিজেদের দায়িত্ব পালন করবেন বলে আমার বিশ্বাস।’ রাজুর অব্যাহতির সিদ্ধান্তের ব্যাপারে জানতে আমির হোসেন বাহারের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ইনকিলাবকে বলেন,‘রাজুর অব্যাহতি পত্র এখনো আমি হাতে পাইনি। যদি সে কোচের দায়িত্বে থাকতে না চায়, তাহলে আমাদের কিছু করার নাই। তারপরও বিষয়টি নিয়ে আমরা ভেবে দেখবো। এটা গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়। সভাপতির সঙ্গে আলোচনা করে ত্বরিৎ সিদ্ধান্ত নিতে হবে আমাদেরকে।’

দেশসেরা শাটলারের স্বামী হিসেবে জাতীয় নারী দলের কোচের দায়িত্ব পালন করা রাজুর কাছে বিব্রতকর মনে হলেও লেভেল টু কোর্স করা কোচ এনায়েতের কাছে তেমনটি হয়তো মনে হয়নি। সোমবার শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ উডেন ফ্লোর জিমনেসিয়াম গিয়ে দেখা গেল পুরুষ দলকে অনুশীলন করাচ্ছেন গৌতম ও মারুফ। তবে নারী দলের ক্যাম্পে ডাক পাওয়া ৬ খেলোয়াড়ের মধ্যে এনায়েত শুধু দু’জন শাটলার দুলালী ও উর্মিকে অনুশীলন করাচ্ছেন। শাপলা, এলিনা সহ বাকি চার জন শাটলার অনুপস্থিত। শাপলা-এলিনার অনুশীলনে না থাকা প্রসঙ্গে ক্যাম্প কমান্ডার নুর মোহাম্মদ বলেন, ‘শাপলা জানিয়েছেন তিনি নাকি অসুস্থ। সুস্থ হলে ঈদের পর ক্যাম্পে যোগ দিবেন। আর এলিনা চাকরি করেন বিধায় দু’বেলা অনুশীলন করতে পারবেন না। সকালের সেশনে তিনি কখনোই অনুশীলন করতে পারবেন না। শুধু বিকেলের সেশনেই প্র্যাকটিস করবেন।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্যাডমিন্টন
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ