Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ২০ চৈত্র ১৪২৬, ০৮ শাবান ১৪৪১ হিজরী

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের লোকসান তিন কোটি টাকা

শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০০ এএম

শেয়ার বাজারে বিনিয়োগে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের লোকসান প্রায় তিন কোটি টাকা। এনিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। কমিটির পক্ষ থেকে শেয়ার বাজারের মতো জুয়া খেলায় বিনিয়োগ না করে প্রয়োজনে সঞ্চিত অর্থ এফডিআর করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।
গতকাল বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে এই সুপারিশ চূড়ান্ত করা হয়। কমিটির সভাপতি মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম, বীর উত্তম-এর সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটি সদস্য নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্মুদ চৌধুরী, শাজাহান খান, মো. মজাহারুল হক প্রধান, রণজিৎ কুমার রায়, মাহফুজুর রহমান, এম আব্দুল লতিফ, ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল, মো. আছলাম হোসেন সওদাগর ও এস এম শাহজাদা এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
কমিটি সূত্র জানায়, আগের বৈঠকের আলোচনার সূত্র ধরে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের শেয়ার বাজারে বিনিয়োগে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়। এবিষয়ে কমিটির সদস্য শাজাহান খান বৈঠকে বলেন, বন্দর কর্তৃপক্ষ ২৬ কোটি টাকার শেয়ার ক্রয় করায় ২ কোটি ৭৫ লাখ টাকা লোকসান হয়েছে। শেয়ার বাজার জুয়া খেলার মতো। তাই সেখানে বিনিয়োগ না করে এফডিআরে বিনিয়োগ করা যেতে পারে। তার বক্তব্যকে সমর্থন জানিয়ে সভাপতি বলেন, শেয়ার মার্কেটে বিনিয়োগ ঝুঁকিপূর্ণ হলে বন্দরের জমাকৃত অর্থ এফডিআরে জমা রাখা যায়। বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শেষে বিশেষজ্ঞ পরামর্শ সাপেক্ষে বন্দরের জমাকৃত টাকা বিনিয়োগের সুপারিশ করা হয়।
এদিকে বৈঠকে জানানো হয়, বর্তমান সরকারের দিক-নির্দেশনা ও সার্বিক সহযোগিতায় ইতোমধ্যে চীন সরকারের অর্থায়নে ৬টি নতুন জাহাজ বাংলাদেশ শিপিং করর্পোরেশনের বহরে যুক্ত হয়েছে। এরমধ্যে ৩টি বাল্ক ক্যারিয়ার ও ৩টি প্রোডাক্ট অয়েল ট্যাংকার রয়েছে। চীন থেকে আরো ৬টি জাহাজ সরাসরি পদ্ধতিতে ক্রয়ের একটি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। আরো জানানো হয়, মেরিটাইম সেক্টরে নারীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত ও নারীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশ শিপিং করর্পোরেশন তথা বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মত ২০১৪ সাল হতে এ পর্যন্ত বাংলাদেশ মেরিন একাডেমির ৫১জন মহিলা ক্যাডেটকে বাংলাদেশ শিপিং করর্পোরেশনের বিভিন্ন জাহাজে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। আর যোগ্য ক্যাডেটদের শিপিং করর্পোরেশনের বিভিন্ন জাহাজে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। নতুন ৬টি জাহাজে ৪জন নারী অফিসার ও ১৯জন নারী প্রশিক্ষণার্থী ক্যাডেট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।
বাংলাদেশ শিপিং করর্পোরেশনকে কিভাবে আরো বেশি কার্যকর, সচল ও লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত করা যায় সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় সুপারিশ প্রণয়ন করতে কমিটি সদস্য এম আব্দুল লতিফকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি সাব-কমিটি গঠন করা হয়েছে। সাব কমিটিকে আগামী দুই মাসের মধ্যে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চট্টগ্রাম বন্দর

২৬ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ