Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

বিমানবন্দর সম্প্রসারণে জন্য বাংলাদেশের কাছে জমি চেয়েছে ভারত!

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ আগস্ট, ২০১৯, ১২:১৯ পিএম

বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী ত্রিপুরা বিমানবন্দর সম্প্রসারণের জন্য ভারত, বাংলাদেশের কাছে জমি চেয়েছে বলে যে কথা বলা হচ্ছে, তা জোর গলায় অস্বীকার করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

গত কয়েকদিন ধরে বাংলাদেশ এবং ভারতের গণমাধ্যমে এই মর্মে খবর বের হয় যে ত্রিপুরা বিমানবন্দরের রানওয়ে সম্প্রসারণের জন্য ভারত বাংলাদেশের কাছে জমি চেয়েছে।

এ বিষয়ে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে বাংলাদেশের গণমাধ্যমে নানা ধরণের পরস্পরবিরোধী খবরও বের হয়।

ভারত কি আসলেই বাংলাদেশকে এরকম কোন প্রস্তাব দিয়েছে?


এ ব্যাপারে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বিবিসি বাংলাকে বলেন, "ভারত আমাদের কাছে কোন জমি চায়নি। যে খবরটি আপনারা জেনেছেন সেটা সম্পূর্ণ অসত্য।"

শাহরিয়ার আলম জানিয়েছেন, "ভারত মূলত যেটা চেয়েছে, সেটা হচ্ছে ত্রিপুরা বিমানবন্দরের রানওয়েতে লাইটের কমপ্লিট ফেইজ পূরণ করতে বাংলাদেশের অংশে কিছু লাইট বসাতে।"

"যেকোনো বিমানবন্দরের রানওয়েতে বিমান ওঠানামার নির্দেশনা দেয়ার জন্য লাইটের একটি কমপ্লিট ফেইজের প্রয়োজন হয়। যেখানে কয়েক ফুট অন্তর অন্তর প্রায় ৫০টির মতো লাইট বসানো হয়। একে বলা হয় ক্যাট আই লাইট।"

মিঃ আলম বলেন, "লাইটের এই কমপ্লিট প্যানেলের যে দৈর্ঘ্য সেটা বসানোর মতো জায়গা ভারতের অংশে না থাকায় তারা বাকি কিছু লাইট বাংলাদেশের অংশে বসানোর অনুরোধ করে একটি প্রস্তাবনা দিয়েছে।"

সম্প্রতি ভারত এ নিয়ে একটি অনুরোধপত্র পাঠিয়েছে উল্লেখ করে তিনি জানান, "ভারত লাইট বসানোর বাইরে রানওয়ে সম্প্রসারণের জন্য জমি বা কোন অবকাঠামো নির্মাণের জন্য কিছু চায়নি।"

"এসব লাইটের বেশিরভাগ ভারতেই অংশেই বসবে, এরমধ্যে কিছু লাইট আন্তর্জাতিক মানদণ্ড মেনে বাংলাদেশের অংশে বসানো হতে পারে।"

তিনি জানিয়েছেন, বর্তমানে বাংলাদেশের সিভিল এভিয়েশনকে ভারতের এই অনুরোধ যাচাই বাছাই করে তাদের মতামতের জন্য বলা হয়েছে। সিভিল এভিয়েশনের মতামতের ভিত্তিতে উচ্চ পর্যায়ের কমিটিতে আলাপ আলোচনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।



 

Show all comments
  • Azad ১০ আগস্ট, ২০১৯, ১:১৭ পিএম says : 0
    We have right get Tista water but India fail to show any positive attitude so far. So there is no reason give 1 centimeter of land of Bangladesh to India for installation of any lights. While India install these Lights on land of Bangladesh. That is the land of Bangladesh you give it to India. Now is that how much land? SHahriyar never said. So Shahriyar is lying.
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Kowaj Ali khan ১০ আগস্ট, ২০১৯, ৫:৪৫ পিএম says : 0
    মোনাফেকদের কারণে ভারত এত সাহস দেখায়। আমি মোনাফেকদের বলতে চাই। ওহে মোনাফেকেরা ভারতের সাথে সকল সম্পর্ক চিন্ন করো। তা না করিলে একিদিন জনগণ তুমাদেরকে জুতা বারি দিবেন। ইনশাআল্লাহ।
    Total Reply(0) Reply
  • Saif ১০ আগস্ট, ২০১৯, ২:০৩ পিএম says : 0
    Sir কথা তো একটাই হল.
    Total Reply(0) Reply
  • Suruj ১০ আগস্ট, ২০১৯, ৩:০১ পিএম says : 0
    আমাদের কে নিয়ে খেলবেন না ok
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বাংলাদেশ


আরও
আরও পড়ুন