Inqilab Logo

সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

রাউজানে আলেমদের ওপর নির্যাতনের খ

| প্রকাশের সময় : ১১ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০০ এএম

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : আজ সাড়ে তিনমাস ধরে রাউজানে আলেম ওলামাদের ওপর নির্যাতন চলছে। অথচ এ রাউজান ছিল শান্তির জনপদ। কাগতিয়া এশাতুল উলুম কামিল এম এ মাদরাসার প্রিন্সিপাল ও দেশ বরেণ্য খ্যাতনামা একজন আলেমকে ভাড়াটিয়া স্বঘোষিত বক্তা দিয়ে বিভিন্ন ধরনের উসকানিমূলক বক্তব্য বেফাঁস কথাবার্তা ভণ্ড, দাজ্জাল, বোসেক, বাংলাভাই ইত্যাদি অসম্মানজনক কটুক্তি করে রাউজানে ধর্মীয় উম্মদনা সৃষ্টি করছে।
স্থানীয় কিছু ধর্মীয় সংগঠনকে প্রিন্সিপালের বিরুদ্ধে না নামলে রাউজানে থাকতে দেবে না বলে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। পীর ছাহেব হুজুরকে তাদেরকে কাফের ফতোয়া দিতে বাধ্য করছে। পীর ছাহেবের মাধ্যমে পরিচালিত মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি একটি অরাজনৈতিক তরিক্বতভিত্তিক আধ্যাতি্মক সংগঠন। এ সংগঠনের মাধ্যমে হাজার হাজার তরুণ শান্তির পথে ফিরে এসে হুজুর পাক (সা.)-এর ওপর দৈনিক এগারশত এগার বার দরুদ পাঠ করছে। এ কমিটি ধর্মীয় মূল্যবোধ সৃষ্টির জন্য এশয়াত সম্মেলন, এশায়াত মাহফিল, এশায়াত সেমিনার আয়োজন করে আলোকিত মানুষ গড়ার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। ধর্মীয় শান্তি শৃঙ্খলা ভঙ্গ করা দণ্ডনীয় অপরাধ। অথচ স্থানীয় সংসদ সদস্যের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ মদদে একজন প্রতিষ্ঠিত পীর ছাহেবের বিরুদ্ধে কিছু উগ্রপন্থীকে ক্ষেপিয়ে দিয়ে শান্তির জনপদ রাউজানকে অশান্ত করার চেষ্টা চলছে। রাউজানবাসীর আকুল আবেদন প্রধানমন্ত্রী বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত অপরাধীর শাস্তি নিশ্চিত করে হাজার হাজার গৃহহারা রাউজানবাসীকে ঘরে ফেরার ব্যবস্থা করুন। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রাউজানে আলেমদের ওপর নির্যাতন
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ