Inqilab Logo

সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

পরকীয়া প্রেমে বাধা দেয়ায় স্বামী হত্যা

আটক স্ত্রীর স্বীকারোক্তি

বিরল (দিনাজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১১ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০০ এএম

বিরলে স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমে বাধা দেয়ায় ঘুমন্ত স্বামীকে শ্বাসরোধে হত্যার ঘটনায় আটক স্ত্রী তৈয়বা বেগমের স্বীকারোক্তি মতে রকেট (২৩) নামে আরো এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। রকেট একই উপজেলার ধর্ম্মপুর মহলবাড়ী গ্রামের আবেদ আলীর পুত্র। এছাড়া ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ওই এলাকার গুপিনাথপুর গ্রামের মৃত কান্দুড়া মোহাম্মদের পুত্র মুদি ব্যবসায়ী মোকলেছার রহমান মকুল (৫০) নামে অপর এক ব্যক্তিকে পুলিশ ঘটনার পর থেকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদে রেখেছে। চাঞ্চল্যকর এ হত্যা মামলার আইও বিরল থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এএমএম নাজমুল আহাম্মেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আটক তৈয়বা বেগম পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। তদন্তের স্বার্থে তা এখনই খুলে বলা সম্ভব হচ্ছেনা। তবে আটক স্ত্রী তৈয়বার পরকীয়া প্রেমের সূত্র ধরেই ঘুমন্ত স্বামী ফরহাদুলকে হত্যা করা হয়েছে বলে তৈয়বার নিকট থেকে জানা গেছে। জবানবন্দি প্রদানের জন্য তৈয়বাকে পুলিশের প্রহরায় আদালতে পাঠানো হয়েছে। এদিকে ফরহাদুলের লাশের ময়না তদন্তশেষে শুক্রবার সন্ধ্যায় তাঁকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

অপরদিকে এ ঘটনায় ফরহাদুলের পিতা মোজাহার আলী বাদি হয়ে ঘাতক পুত্রবধূ তৈয়বা বেগম, পরকিয়া প্রেমিক সোহেল (২২)সহ ৪ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরোও ৪/৫ জনকে আসামি করে শুক্রবার রাতে বিরল থানায় একটি হত্যা মামলা নং ১১ দায়ের করেছেন। তৈয়বার পরকিয়া প্রেমিক সোহেল একই ইউপির ধর্ম্মপুর পশ্চিমপাড়া গ্রামের আকবর আলীর পুত্র। এজাহার নামীয় অন্যান্য আসামিরা হলো, একই ইউপির ধর্ম্মপুর মহলবাড়ী গ্রামের জহুর আলীর পুত্র কূখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী রবিউল ইসলাম (২৬) ও একই গ্রামের আবেদ আলীর পুত্র আটক রকেট (২৩)।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে উপজেলার ধর্ম্মপুর ইউপির ধর্ম্মপুর টিকরীপাড়া গ্রামের মোজাহার আলীর পুত্র ফরহাদুল ইসলাম (২৫) কে ঘুমন্ত অবস্থায় স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমের সূত্র ধরে গলায় গামছা পেঁচিয়ে হত্যা করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ